শাহ-নাড্ডার সভায় হাজির না হলে বিজেপি আর সহ্য করবে না শোভনের লুকোচুরি

শাহ-নাড্ডার কলকাতা সফরে রাজনৈতিক মহলের নজর প্রাক্তন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়ের উপর।

শহিদ মিনার ময়দানে আগামী ১ মার্চ কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এবং বিজেপি সভাপতি জে পি নাড্ডার সভা৷ এই সভায় কি হাজির থাকবেন কলকাতার প্রাক্তন মেয়র
শোভন চট্টোপাধ্যায় ? লাখ টাকার এই প্রশ্ন নিয়েই জল্পনা চলছে বঙ্গ-বিজেপির অন্দরে৷ এই সভায় শোভন চট্টোপাধ্যায় হাজির থাকা না থাকার ওপর নির্ভর করছে ভবিষ্যতে বিজেপিতে তাঁর যুক্ত থাকার বিষয়টি।

বিজেপির এই সভাকে CAA ও NRC-র সমর্থন-সভা বলা হলেও কার্যত শাহ-নাড্ডাকে সামনে রেখেই পুরভোটের প্রচার শুরু করে দিতে চাইছে বিজেপি৷ কলকাতা ও হাওড়ার পুরভোট প্রথমেই হবে বলে অনুমান করা হচ্ছে৷ সেই লক্ষ্যেই পরিকল্পনা সাজিয়েছেন রাজ্য নেতারা৷ শহিদ মিনারের সভার পরেই অমিত শাহ বঙ্গ-বিজেপির নির্বাচন কমিটির সদস্যদের সঙ্গে পুরভোটের প্রচার নিয়ে কথা বলতে পারেন।পুরসভা নির্বাচনে বাংলা বিজেপির ইস্তেহার নিয়েও পরামর্শ দেবেন শাহ-নাড্ডা৷

এই শাহি-মঞ্চেই শোভনকে হাজির করানোর চেষ্টা চলছে বলে জানা গিয়েছে৷ গত নভেম্বরে দিল্লি গিয়ে ঘটা করে শোভন বিজেপিতে যোগ দিলেও, তারপর থেকে বিজেপির কোনও কর্মসূচিতেই তাঁকে দেখা যায়নি৷ এমনকী, শহরে শাহ বা নাড্ডা এলেও শোভন, সৌজন্য দেখিয়েও তাঁদের সঙ্গে দেখা করেননি৷ শুধুমাত্র কলকাতার পুরভোটের দিকে তাকিয়েই বিজেপি শোভনের এই আচরন সহ্য করেছে৷ তবে বঙ্গ-বিজেপির নেতৃত্বের বক্তব্য, “আর নয়, সময় এসে গিয়েছে শোভনকে নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার৷ তাই ১ মার্চের সভায় শোভনকে ডাকা হচ্ছে৷” এলে ভালো, না এলে শোভন ‘চ্যাপ্টার ক্লোজ’ করবে বিজেপি বলেই সূত্রের খবর৷ শোভনের এই লুকোচুরি খেলা এবং এভাবে জাতীয় নেতাদের কার্যত অপমান করার খেলা, বঙ্গ-বিজেপি আর মানতে রাজি নয়৷

এখন দেখার ১ মার্চ কোন পথে হাঁটেন শোভন চট্টোপাধ্যায় ৷