রাজ্য ধ্বংস হয়ে গিয়েছে, ক্ষয়ক্ষতি বুঝতে ১০-১২ দিন লাগবে: মমতা

“রাজ্য ধ্বংস হয়ে গিয়েছে৷ গোটা ধ্বংসের চিত্র বুঝতে ১০-১২ দিন লেগে যাবে৷”

নবান্নে বুধবার রাতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সাংবাদিক বৈঠকে এ কথা জানানোর পাশাপাশি বলেছেন,
“মোট ক্ষতি এখনও গণনা করা যায়নি। এক দিনে কিচ্ছু বোঝা যায় না৷
নদীমাতৃক রাজ্য আমাদের৷ এখন সব জায়গা জলে একাকার৷ বহু জায়গায় বিদ্যুৎ নেই, পানীয় জল নেই। পুকুর, চাষের জমি সব শেষ৷
ব্যারাকপুর, বসিরহাট, বারাসত, বনগাঁ মহকুমা সব ধ্বংস৷ পুরো সুন্দরবন, গঙ্গাসাগর, সব গিয়েছে। হাওড়ার অবস্থা খারাপ৷ পাথরপ্রতিমা, নামখানা, কাকদ্বীপ, কুলতলি, ভাঙড়, বারুইপুর, সোনারপুর, রাজারহাট, হাসনাবাদ, সন্দেশখালি, গোসাবা, হাবড়া, নন্দীগ্রাম, রামনগর-সহ বিস্তীর্ণ এলাকায় শুধু ধ্বংসের ছবি। দিঘাতে তেমন বেশি হিট করেনি৷ বনগাঁ, বাগদা, হাবড়া, সব.. সব, চার দিকে সর্বনাশ হয়ে গিয়েছে৷
দক্ষিণ ও উত্তর ২৪ পরগনা ধ্বংস হয়ে গিয়েছে৷
মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “ধ্বংসের মুখে দাঁড়িয়ে যাঁরা রিলিফ ক্যাম্পে রয়েছেন, তাঁদের আগে দেখা কর্তব্য৷”