স্বেচ্ছাচারিতা: কোয়ারেন্টাইন সেন্টারের সিভিক ভলেন্টিয়ারকে মার পরিযায়ী শ্রমিকদের!

স্বেচ্ছাচারিতা করছেন পরিযায়ী শ্রমিকরা, সরকারি নির্দেশিকা অমান্য করছে প্রত্যেক পদক্ষেপে। এমনটাই অভিযোগ উঠল কোচবিহারের বিভিন্ন কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে। অভিযোগ, তুফানগঞ্জের একটি কোয়ারেন্টাইন কেন্দ্রে থাকা শ্রমিকরা এলাকার বাজারে বেরলে স্থানীয় বাসিন্দারা প্রতিবাদ জানান। তাতে ক্ষিপ্ত হয়ে তাঁরা গ্রামবাসীদের উপর হামলা চালান। এমনকী, কোয়ারেন্টাইন সেন্টারের দায়িত্বে থাকা এক সিভিক ভলেন্টিয়ারের উপরে আক্রমণ করা হয় বলে অভিযোগ। ঘটনায় আহত হয়েছেন মোট তিনজন। তৎক্ষণাৎ তুফানগঞ্জ থানার পুলিশ কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

পরিযায়ী শ্রমিকদের একাংশ তাঁদের খাওয়া এবং থাকার জায়গা নিয়ে ক্রমাগত অভিযোগ করছেন। তাঁদের অভিযোগ সরকার থেকে যে ব্যবস্থা করা হয়েছে তা মোটেও ভালো নয়। নিজেদের ইচ্ছেমতো খাওয়ার দাবি করছেন তাঁরা। যদিও জেলা প্রশাসন থেকে প্রতিদিন প্রত্যেক কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে থাকা পরিযায়ী শ্রমিকদের উপযুক্ত এবং স্বাস্থ্যসম্মত খাবার পরিবেশন করা হচ্ছে বলে জানান কোচবিহারের জেলাশাসক পবন কাদিয়ান।
পরিযায়ী শ্রমিকরা কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে থাকতে চাইছেন না।
কোচবিহার জেলা পুলিশ সুপার সন্তোষ নিম্বালকর জানান, তুফানগঞ্জে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারের বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। কোয়ারেন্টাইনে থাকা কেউ যদি বাইরে ঘুরতে থাকেন, তবে অবশ্যই তাঁর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।