রাজ্য নেতৃত্বের অনুমতি না নিয়ে জেলা সভাপতিদের কমিটি, ক্ষুব্ধ মমতা : এসব চলবে না

বিধায়কদের সঙ্গে ভিডিও বৈঠকে দলীয় বিশৃঙ্খলার বিরুদ্ধে মুখ খুললেন তৃণমূল সুপ্রিমো। নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় শুক্রবার সন্ধের এই ভার্চুয়াল সভায় স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দেন, বেশকিছু জেলা সভাপতি নিজেদের ইচ্ছামতো কমিটি গঠন করছে। এসব জিনিস চলবে না। রাজ্য কমিটির অনুমোদন ছাড়া কোনও সভাপতি সাংগঠনিক রদবদল করলে তা বাতিল করা হবে। এককভাবে কেউ এই সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন না। যদি কাউকে বাদ দিতে হয়, কিংবা কাউকে নিতে হয় তা রাজ্য কমিটিকে জানিয়েই করতে হবে। জেলায় জেলায় সভাপতির অনুগামী না হলে তাকে সরিয়ে দেওয়ার যে প্রবণতা দলের মধ্যে দেখা যাচ্ছে, তা যে বরদাস্ত করতে রাজি নন নেত্রী, বুঝিয়ে দিয়েছেন। ভোটের আগে সকলকে নিয়েই তিনি চলতে চান বার্তা দিলেন দলীয় মহলে।

পাশাপাশি কলকাতার নেতাদের নির্দিষ্ট করে নাম না করে দলনেত্রী বলেন, অনেকে এদিকে ওদিকে মুখ খুলছেন। আমি স্পষ্ট জানিয়ে দিতে চাই, চাইলে তারা দল ছাড়তে পারেন। শুক্রবারের বৈঠকে দলনেত্রী ব্যারাকপুরের সাংগঠনিক কাজকর্ম নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন। সংগঠনের দায়িত্ব বিধায়ক নির্মল ঘোষের কাছ থেকে কেড়ে নিয়ে দীনেশ ত্রিবেদীকে দেওয়া হয়েছে। দীনেশ ত্রিবেদীর হাতে দায়িত্ব দিয়েই মমতা বলেন, দীনেশদা আপনি বারাকপুরে গিয়ে হাল ধরুন। ওখানে বিজেপি রোজ সাম্প্রদায়িক অশান্তি বাধানোর চেষ্টা করছে। আপনাকে তা প্রতিহত করে পাল্টা মানুষকে একজোট করতে হবে।