নজরে পুরভোট: পুজোর আগে ভোট চায় রাজ্য নির্বাচন কমিশন!

লকডাউন শেষে আনলক ফেজ ওয়ান শুরু হতেই রাজ্যে পুরভোট নিয়ে উদ্যোগ নিচ্ছে রাজ্য নির্বাচন কমিশন। করোনার কারণে দেশ জুড়ে জারি থাকা মহামারি আইন শিথিল করে ভোট করানো যায় কি না সে বিষয়ে রাজ্যের সঙ্গে আলোচনা চায় কমিশন। রাজ্য নির্বাচন কমিশন সূত্রে খবর, শীঘ্রই চিঠি দিয়ে এ বিষয়ে সরকারের মতামত জানতে চাওয়া হবে।

করোনা আবহে মার্চ মাসে সব রাজনৈতিক দলের সঙ্গে বৈঠক করেন রাজ্য নির্বাচন কমিশনার সৌরভ দাস। সবার সঙ্গে আলোচনার করে ঐক্যমত্যের ভিত্তিতে অনির্দিষ্টকালের জন্য ভোট পিছিয়ে দেওয়ার কথা ঘোষণা করেন তিনি।
এরপর দেশ জুড়ে শুরু হয় লকডাউন। ক্রমেই বাড়তে থাকে তার মেয়াদ। ফলে এই আড়াই মাসে পুর ভোট নিয়ে আর কোনও রকম অগ্রগতি হয়নি। আইন মেনে মেয়াদ উত্তীর্ণ পুরসভাগুলিতে রাজ্য সরকারের তরফে প্রশাসক বাসানো হয়েছে। কিন্তু এভাবে দীর্ঘদিন চলা সম্ভব নয়। তাই কমিশন চাইছে পুজোর আগে পরে প্রয়োজনে মহামারি আইন শিথিল করে কলকাতা-সহ রাজ্যের বকেয়া পুর নির্বাচন করতে। তাতে এই পরিস্থিতিতে ভোট করা যাবে কি না সেটা নিয়ে সংশয় রয়েছে।
রাজ্য সরকারকে মহামারি আইন শিথিলতার জন্য চিঠি দেওয়ার পাশাপাশি নির্বাচন কমিশন চাইছে একটা সর্বদলীয় বৈঠক ডেকে রাজনৈতিক দলগুলির মতামত জানতে। কী কী বিষয়ে মতামত চাইছে রাজ্য নির্বাচন কমিশন?

• প্রচারের ক্ষেত্রে কতটা ছাড় দেওয়া যেতে পারে

• ভিড় এড়াতে আলোচনা করতে চায় কমিশন

• ভোটগ্রহণ কীভাবে হবে ইভিএমে না ব্যালট পেপারে- তা নিয়েও মতামত চায় কমিশন

যদিও রাজ্য সরকার চায় ভোট হোক ব্যালট পেপারে।