বিমান চলাচল নিয়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে ক্ষোভ মুখ্যমন্ত্রীর

এখন দেশে যা করোনা পরিস্থিতি, তাতে সংক্রমণ ক্রমশ ছড়াচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে বিদেশ থেকে বেশি সংখ্যায় বিমান চালানোর বিরোধিতা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, এ বিষয়ে রাজ্যের আপত্তি জানিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারকে চিঠি দিচ্ছেন মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা। মুখ্যমন্ত্রীর অভিযোগ, বিদেশ থেকে যাঁরা বিমানে ফিরছেন, তাঁরা অধিকাংশই নিয়ম মানছেন না। বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইনে যাচ্ছেন না। এঁদের মাধ্যমেই রাজ্যে সংক্রমণ আরও ছড়িয়ে পড়ছে বলে অভিযোগ মমতার।

একই সঙ্গে দেশের মধ্যে বিমান চলাচলের ক্ষেত্রেও কিছু নিষেধাজ্ঞা জারির আবেদন করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর অভিযোগ, দেশীয় বিমান চলাচলের ক্ষেত্রে কোনও নজরদারি করা হচ্ছে না। ফলে করোনা আক্রান্ত রোগী সহজেই এক রাজ্য থেকে আর এক রাজ্যে যাচ্ছেন। এরকমই একজন চেন্নাই থেকে এরাজ্যে এসেছেন। রাজ্য সরকারের নজরদারি না থাকলে তাঁকে শনাক্ত করে হাসপাতালে ভর্তি করা যেত না বলে নবান্নে জানান মুখ্যমন্ত্রী।
কেন্দ্রের কাছে তিনি আবেদন করেন, যেসব রাজ্যে সংক্রমণ বেশি, সেই সব রাজ্য থেকে জুলাই মাসে কোনও বিমান চলাচল যেন না করা হয়। আন্তর্জাতিক বিমানের ক্ষেত্র মাসে একটি করে উড়ানের আবেদন জানান মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, রাজ্যের ভিতর কলকাতা থেকে বাগডোগরা বা অন্ডালে বিমান চালানো যেতে পারে। কিন্তু যেসব জায়গায় সংক্রমণ বেশি সেসব জায়গা থেকে বিমান যাত্রী নিয়ে এলে রাজ্যে সংক্রমণ বেড়ে যাচ্ছে। সুতরাং সেই সব জায়গা থেকে বিমান চলাচল আপাতত বন্ধ রাখার পক্ষে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।