বিজেপি’র সেই সোমনাথের বিরুদ্ধে এবার টাকা নিয়ে ফেরত না দেওয়ার অভিযোগ

আরও বিপাকে বিজেপি নেতা সোমনাথ বন্দ্যোপাধ্যায়৷

নারীঘটিত কেলেঙ্কারিতেই শেষ নয়, এবার বিজেপি দক্ষিণ কলকাতার বিদায়ী সভাপতি সোমনাথ বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে ৬ লক্ষ টাকা নিয়ে ফেরত না দেওয়ার অভিযোগ উঠলো৷

মৃনালকান্তি দাস নামে বিজেপি’রই এক সংগঠক সোমনাথের বিরুদ্ধে হরিদেবপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করছেন। সোমনাথের বিরুদ্ধে ৬ লক্ষ টাকা নিয়ে ফেরত না দেওয়ার অভিযোগ এনেছেন মৃণালবাবু৷

একইসঙ্গে দলের রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের বিরুদ্ধে তাঁর অভিযোগ, “সোমনাথ বন্দ্যোপাধ্যায়ের
সব ঘটনা দফায় দফায় দিলীপ ঘোষকে জানানোর পরও তাঁর বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থাই নেন নি সভাপতি।”

হরিদেবপুর থানায় লিখিত অভিযোগে মৃনালকান্তি দাস আরও লিখেছেন “১১৭ নম্বর ওয়ার্ডে প্রার্থী হয়েছিলো সোমনাথ। আমার থেকে সেই সময় ২ লক্ষ টাকা নেয় ।পরবর্তী সময়ে আরও ৪ লক্ষ টাকা নেয়।”
অভিযোগে বলা হয়েছে, মৃণালের ফাঁকা জমিতে বাড়ি তৈরির বরাত দেওয়া হয়েছিল সোমনাথকে ।কিন্তু তার পরও সে টাকা ফেরত দেয়নি সোমনাথ । মৃণালের অভিযোগ, রাজ্য নেতারা সব জানলেও ব্যবস্থা নেয়নি সোমনাথের বিরুদ্ধে । এমনকী দিলীপের কাছে ৩টি চিঠিও লেখেন মৃনাল। তাঁর অভিযোগ সব জেনেও চুপ ছিলেন রাজ্য সভাপতি, বলছেন অভিযোগকারী।

প্রসঙ্গত, সোমনাথের বিরুদ্ধে প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাসের অভিযোগ জমা পড়ে হরিদেবপুর থানায়।তার জেরে জেলা সভাপতি পদ থেকে সোমনাথকে সরিয়ে দেয় বঙ্গ-বিজেপি। এরই মধ্যে দলের পুরোনো দিনের সক্রিয় সদস্য মৃনাল কান্তি দাসের এই অভিযোগ৷