সংবিধানের প্রস্তাবনা থেকে বাদ যাক ‘সোশালিস্ট’ ও ‘সেক্যুলার’ শব্দ, মামলা সুপ্রিম কোর্টে

সংবিধানের প্রস্তাবনা থেকে সমাজতান্ত্রিক বা Socialist ও ধর্মনিরপেক্ষ বা Secular শব্দ দুটি বাদ দেওয়ার দাবিতে এবার মামলা হল সুপ্রিম কোর্টে৷ রাজনৈতিক মহলের অনুমান, এই মামলার পিছনে রয়েছে RSS-এর সক্রিয় সহযোগিতা ও পরামর্শ ৷

আবেদনে বলা হয়েছে, এই শব্দ দুটি ভারতীয় ঐতিহ্যের পরিপন্থী এবং বামপন্থী ভাবধারার৷ মামলাটি করেছেন বলরাম সিংহ ও করুণেশ শুক্লা নামে দুই আইনজীবী।২০১৬ সালে এই আর্জি জানিয়ে এলাহাবাদ হাইকোর্টে মামলা হয়েছিল। কিন্তু আদালত সেই মামলা গ্রহণই করেনি।

১৯৭৬ সালে ৪২ তম সংবিধান সংশোধনী হিসেবে ২(এ) ধারায় সমাজতান্ত্রিক ও ধর্মনিরপেক্ষ শব্দ দুটি যুক্ত করা হয়। এই শব্দ দুটি নিয়ে প্রথম থেকেই প্রবল আপত্তি RSS-এর৷ এবার তো সরাসরি মামলা-ই হয়ে গেল সুপ্রিম কোর্টে। আবেদনে দাবি করা হয়েছে, প্রস্তাবনায় সমাজতান্ত্রিক ও ধর্মনিরপেক্ষ শব্দ দুটির অন্তর্ভুক্তি সংবিধানেরই পরিপন্থী। এই শব্দ দুটি আসলে সংবিধানেরই বাক স্বাধীনতা ও মত প্রকাশের স্বাধীনতা এবং ধর্মীয় স্বাধীনতার পরিপন্থী। হলফনামায় বলা হয়েছে, সংবিধানে এই শব্দ দুটি মার্কসের ভাবধারায় অনুপ্রাণিত হয়ে যোগ করা হয়েছে। যা ভারতীয় ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির সঙ্গে সম্পূর্ণ বেমানান।
আবেদনে আরও বলা হয়েছে, ভারতে কোনও রাজনৈতিক দলের রেজিস্ট্রেশন করাতে সংবিধানের প্রস্তাবনায় থাকা ধর্মনিরপেক্ষ ও সমাজতান্ত্রিক শব্দ দুটি বাধ্যতামূলকভাবে দলের সংবিধানে থাকতে হয়। আবেদনকারীরা সর্বোচ্চ আদালতের কাছে আর্জি জানিয়েছেন, যাতে এই নিয়মেরও বদল করার নির্দেশ দেওয়া হয়