বিপ্লবকে ধরে রাখতে না পেরে মুখ লোকাতে অন্য গান গাইছেন দিলীপ

মাত্র এক বছর কাটতে না কাটতেই বিজেপির মোহ ত্যাগ করে তৃণমূলে “ঘর ওয়াপসি” উত্তরবঙ্গের দাপুটে নেতা বিপ্লব মিত্রের। নীতিগত কারণেই বিজেপি ছেড়েছেন তিনি। একইসঙ্গে দক্ষিণ দিনাজপুরের এই দাপুটে নেতা জানিয়েছেন, বাংলা নয় এ রাজ্যে বিজেপি পরিচালিত হয় দিল্লি-গুজরাত থেকে। তাই এমন একটি দলের সঙ্গে ঘর করা তাঁর পক্ষে সম্ভব নয়। এবং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আহ্বানেই ফের নিজের দলে ফিরেছেন তিনি। একইসঙ্গে একুশের নির্বাচনে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার ৬টি আসনই তৃণমূল দখল করবে বলে দাবি করেছেন বিপ্লববাবু। উত্তরবঙ্গে বিজেপিতে আরও ভাঙন ধরানোর ইঙ্গিত দিয়েছেন বিপ্লব মিত্র।

কিন্তু এক বছরের মধ্যেই কেন বিজেপি ত্যাগ করলেন বিপ্লব মিত্র। কী বলছে গেরুয়া শিবির? বিজেপির রাজ্যসভাপতি দিলীপ ঘোষ দাবি করেছেন, নিরাপত্তা চেয়েছিলেন বিপ্লব। সেটা সকলকে দেওয়া সম্ভব নয়। তাঁরাও বিপ্লবকে নিরাপত্তা দিতে পারেন নি। তাই তৃণমূলে ফিরেছেন বিপ্লব মিত্র।

দিলীপ ঘোষের কথায়, “বিপ্লব মিত্র আমাদের কাছে নিরাপত্তা চেয়েছিলেন। কিন্তু সবাইকে নিরাপত্তা দেওয়া সম্ভব নয়। অনেক কর্মী মার খাচ্ছেন। বিরোধীদের এরাজ্যে কী অবস্থা তা তিনি উপলব্ধি করলেন।”

তবে বিপ্লবের দলত্যাগ নিয়ে যে ব্যাখ্যাই দিন না কেন দিলীপ ঘোষ, ভিতর ভিতর বিজেপির সংগঠনে যে মরচে ধরেছে, চিড় ধরেছে তা কিন্তু স্পষ্ট। দিল্লির নেতৃত্বও সেকথা জানে। তাই বিপ্লবের দলত্যাগ নিয়ে রাজ্য বিজেপি সভাপতির আজগুবি ব্যাখ্যা কিন্তু রাজনৈতিক মহলে ধোপে টিকছে না।