বাইপোলার ডিসঅর্ডার এবং হাইপোম্যানিয়া ছিল সুশান্তের, মুখ খুললেন অভিনেতার চিকিৎসক

মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত। বাইপোলার ডিসঅর্ডার এবং হাইপোম্যানিয়াতে আক্রান্ত ছিলেন তিনি। এই মানসিক চাপ অনেক রোগী সামলাতে পারেন না। সুশান্তের ক্ষেত্রেও ব্যতিক্রম হয়নি। সংবাদমাধ্যমকে এ তথ্য দিয়েছেন অভিনেতা র চিকিৎসক ক্লিনিকাল সাইকোলজিস্ট ডা. সুজান মোফাট ওয়াকার।

সুশান্তের মৃত্যুর পর সংবাদমাধ্যমের সামনে এই প্রথম মুখ খুলেছেন ডা. সুজান। তিনি জানিয়েছেন, প্রবল মানসিক চাপ, উদ্বেগ, উৎকণ্ঠা হাইপোম্যানিয়ার উপসর্গ। একইসঙ্গে বাইপোলার ডিসঅর্ডারের জন্য মানসিক স্থিতি ঠিক ছিল না সুশান্তের। এক্ষেত্রে দুই বিপরীত ধর্মী আচরণ দেখা যায় রোগীর মধ্যে। সুজানের কথায়, বাইপোলার ডিসঅর্ডার ভুগলে কখনও হাসিখুশি আবার কখনও তীব্র অবসাদে আচ্ছন্ন হয়ে পড়তে পারে রোগী। সব সময় একটা মানসিক চাপ থাকে। যা সাধারণত রোগীকে কাটিয়ে উঠতে পারেন না। সুশান্তের ক্ষেত্রেও তেমনটাই হয়েছিল।

এদিকে সুশান্তের পরিবার তাঁর চর্চিত বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন। পাটনার রাজীবনগর থানায় এফআইআর দায়ের করেছেন সুশান্তের বাবা কৃষ্ণ কুমার সিং। ইতিমধ্যে তদন্ত শুরু হয়েছে। তবে রিয়া চক্রবর্তীর পাশে দাঁড়িয়েছেন সুশান্তের চিকিৎসক। তাঁর কথায়, ” সুশান্তের মৃত্যুর জন্য রিয়াকে দায়ী করা ঠিক নয়। রিয়া ছিল সুশান্তের বড় সাপোর্ট। ওঁদের অনেকদিন ধরে দেখছি। সুশান্ত যখন মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছিলেন তখন রিয়ার মধ্যেই আশ্রয় খুঁজেছিলেন।”