কৃষি বিলের বিরুদ্ধে রক্ত দিয়ে রাজপথে আন্দোলনে তৃণমূলের কৃষক সংগঠন

trinamool congress farmers organization, kolkata, farm bill

কেন্দ্রের কৃষি বিলের বিরুদ্ধে গর্জে উঠলো এ রাজ্যের কৃষকরা। কেন্দ্রের এই বিলকে “কালা কানুন” আখ্যা দিয়ে এবার কলকাতার রাজপথে লাগাতার বিক্ষোভ-আন্দোলন চালাচ্ছে তৃণমূলের কিষান ক্ষেতমজুর সংগঠন। আজ, শুক্রবার ধর্মতলায় গান্ধী মূর্তির পাদদেশে সারা রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে এসে কৃষকরা এই কর্মসূচিতে যোগ দেন। যার নেতৃত্ব দেন সংগঠনের সভাপতি তথা তৃণমূল বিধায়ক বেচারাম মান্না। সেখানে হাজির ছিলেন তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্ব। এসেছিলেন তৃণমূল রাজ্য সভাপতি সুব্রত বক্সি, তাপস রায়, অশোক দেব, বৈশ্বানর চট্টোপাধ্যায় প্রমূখ।

এদিনের প্রতিবাদ মঞ্চ থেকে কৃষকরা রক্ত দিয়ে লেখেন “কেন্দ্রের নয়া কালা কৃষি আইন মানছি না, মানবো না…!” এদিন গান্ধী মূর্তির পাদদেশে কৃষকদের প্রতিবাদের ভাষা কার্যত রক্তে রঙিন হয়ে ওঠে। রাজপথে শুধু রক্ত দিয়ে প্রতিবাদ করাই নয়, কেন্দ্রের কৃষি বিলের প্রতিলিপি পুড়িয়ে বিক্ষোভ দেখায় তৃণমূলের কিষান ক্ষেতমজুর সংগঠন।

এদিন বেচারাম মান্না জানান, কেন্দ্রের নরেন্দ্র মোদি সরকার সম্পূর্ণ অগণতান্ত্রিক উপায়ে গায়ের জোরে সংসদে কৃষক বিরোধী বিল পাস করিয়েছে। কেন্দ্রের এই কৃষক বিরোধী বিলের বিরুদ্ধে এ রাজ্যের কৃষকরা গর্জে উঠবে। শহরের বুকে রক্ত দিয়ে হবে সেই আন্দোলন। তাতেও যদি মোদির টনক না নড়ে, তাহলে আরও বৃহত্তর আন্দোলনের পথে হাঁটবেন এ রাজ্যের গরিব কৃষকরা।

বেচারাম মান্নার দাবি, কেন্দ্রের এই বিলের ফলে লাভবান হবে আদানি-আম্বানিদের মতো শিল্পপতিরা। SEZ-এর প্রথম ধাপ হিসেবে “নয়া কালা কৃষি আইন” মানা হবে না। ইংরেজ আমলে নীল চাষিদের মতো অবস্থা হবে দেশের কৃষকদের। তারা না খেতে পেয়ে মরবে। আত্মহত্যার পথ বেছে নেবে।

কোনওভাবেই কেন্দ্রের এই বিল মেনে নেওয়া হবে না। বাংলার কৃষকদরদী মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে কৃষকদের অধিকার আদায়ের লড়াই চলবে বলেই জানালেন বেচারাম মান্না।

আরও পড়ুন-“কল্পতরু” মুখ্যমন্ত্রীকে কৃতজ্ঞতা জানালো ফোরাম ফর দুর্গোৎসব