ক্লাববিরোধী কাজের জন্য চাকরি গেল মহামেডান কোচের

দ্বিতীয় ডিভিশন আই লিগের মাঝপথে কোচ বদল করলো মহামেডান। যেদিন এই কোচ বদলের সিদ্ধান্ত নেওয়া হল, সেদিন আরাএফসিকে ৪-১ গোলে হারিয়ে দুর্দান্ত জয় পায় সাদা-কালো ব্রিগেড।  দ্বিতীয় ডিভিশন আই লিগের দুটো ম্যাচ বাকি থাকতেই হেড কোচের পদ থেকে সরানো হল ইয়ান ল কে। সহকারী কোচ শাহিদ রমন ও টিডি দীপেন্দু বিশ্বাস বাকি দুটি ম্যাচে দলকে গাইড করবেন।

আরও পড়ুন- নেপালকে করোনামুক্ত দাবি করা যোগেশ ভট্টরাই এখন নিজেই করোনা আক্রান্ত
কোচকে সরিয়ে দেওয়ার কারণ হিসেবে যে যুক্তি শোনা যাচ্ছে তাও কম আশ্চর্যজনক নয়।
জানা গিয়েছে, টিম হোটেলেই উঠেছিলেন মিনার্ভা পাঞ্জাব অ্যাকাডেমির বিতর্কিত মালিক। ইয়ান ল আগে মিনার্ভার কোচ ছিলেন। কোচের সন্দেহজনক গতিবিধি লক্ষ্য করে নজর রাখছিলেন মহামেডান কর্তারা । অভিযোগ, মিনার্ভার মালিকের কথাতেই পাঞ্জাবের ফুটবলারদের বেশি করে দলে রাখার চেষ্টা করত ইয়ান ল। এটা বুঝতে পেরেই মহমেডান সচিব এসএমএস করে কোচকে এই ধরনের ক্লাববিরোধী কাজকর্ম করতে নিষেধ করেন। এরপরই আগুনে ঘি পড়ে। কারণ, ইয়ান ল মহমেডান সচিবের ওই এসএমএস পাঠিয়ে দেন মিনার্ভার ওই বিতর্কিত মালিককে। তিনি আবার সেই এসএমএস সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন। সবমিলিয়ে পরিস্থিতি জটিল হয়ে ওঠে।
এমনকি সচিব ওয়াসিমের নামে বিভিন্ন জায়গায় বিরূপ মন্তব্য করতে থাকেন কোচ। এরপর তাকে সরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্তে শিলমোহর দিতে বেশি দেরি করেননি কর্তারা ।