অনুদানের টাকা কর্মকর্তাদের বিনোদনে খরচ নয়, দিতে হবে হিসেবে: নির্দেশ হাইকোর্টের

পুজোয় সরকারি অনুদান নিয়ে পুজো কমিটি এবং পুলিশকে নির্দেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট। বিচারপতি সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন,

• অনুদানের ৭৫ শতাংশ খরচ করতে হবে মাস্ক ও স্যানিটাইজারের জন্য

• ২৫ শতাংশ খরচ করতে হবে পুলিশের জনসংযোগে

• কর্মকর্তাদের বিনোদনের জন্য খরচ করা যাবে না

• বিলের হিসেব সরকারকে বোঝাতে হবে

• পুজো কমিটিকে লিফলেট আকারে নির্দেশ পাঠাবে পুলিশ

• কাজ সম্পূর্ণ হল কি না তা হলফনামা দিয়ে জানাতে হবে

পুজোর অনুদান নিয়ে দায়ের করা মামলার দ্বিতীয়দিনের শুনানিতে রাজ্য সরকারকে তীব্র ভর্ৎসনা করে কলকাতা হাইকোর্ট। শুনানিতে বিচারপতি বলেন, মুখ্যমন্ত্রী টাকা দেওয়ার সময় যা ঘোষণা করেছিলেন, তার সঙ্গে সরকারি বিজ্ঞপ্তির বয়ান মিলছে না। ক্লাবগুলিকে অনুদান দেওয়ার ঘোষণার সময় মুখ্যমন্ত্রী জানান, এবছর সংকটজনক পরিস্থিতিতে বিজ্ঞাপন পেতে অসুবিধা হচ্ছে বলে ক্লাবগুলোকে ৫০ হাজার টাকা করে অনুদান দেওয়া হবে। কিন্তু পরে অনুদানের বিষয়ে নবান্ন থেকে যখন বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ হয়, তখন সেখানে ক্লাবগুলিকে মাস্ক, স্যানিটাইজার কেনার জন্য টাকা দেওয়া হচ্ছে বলে উল্লেখ করা হয়। মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্যের সঙ্গে তার ফারাক রয়েছে বলে উল্লেখ করেন বিচারপতি।

বিচারপতির প্রশ্ন করেন, যেখানে মহামারি আইন চালু রয়েছে, মাস্ক না পরে বাড়ি থেকে বেরোনোটা অপরাধ। সেখানে কী করে ধরে নেওয়া হচ্ছে, সবাই মাস্ক না পরেই বেরিয়ে আসবেন, আর পুজো মণ্ডপে গিয়ে মাস্ক নিয়ে পরবেন।

পুজোয় সরকারি অনুদান নিয়ে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা করেন পশ্চিম বর্ধমানের দুর্গাপুরের সিটু নেতা সৌরভ দত্ত। সেই মামলার শুনানিতে এই নির্দেশ দেওয়া হয়।

আরও পড়ুন-বক্তব্য আর বয়ানে ফারাক: রাজ্যকে তীব্র ভর্ৎসনা হাইকোর্টের