এক মহিলাকে স্বীকৃতি দেননি অর্জুন, অভিযোগ শশী পাঁজার

গত কয়েক দিন ধরেই তৃণমূলের বিরুদ্ধে সুর চড়াচ্ছেন বিজেপি সংসদ অর্জুন সিং। এই নিয়ে রাজনীতিতে বিস্তর জল ঘোলা হয়েছে। কিন্তু যে অর্জুন সিং এত কথা বলছেন, তিনি নিজেই কি নিজের সম্পর্কে সত্যি কথা বলেন? প্রশ্ন তুলে দিলেন রাজ্যের মন্ত্রী শশী পাঁজা। শনিবার, তৃণমূল ভবনে সাংবাদিক বৈঠকে তিনি জানান, লোকসভা নির্বাচনের প্রার্থী হওয়ার সময় অর্জুন সিং প্রার্থী হিসেবে হলফনামা জমা দিয়েছিলেন। সেই হলফনামায় তিনি সত্যের অপলাপ করেছেন। সেখানে ঘোষিত সম্পত্তির পরিমাণ অর্জুন সিং যা দেখিয়েছেন তার তুলনায় তাঁর সম্পত্তির পরিমাণ অনেক বেশি বলে জানান শশী। এ বিষয়ে বেঙ্গালুরুর এবং দুবাইয়ের দুটি কোম্পানির উল্লেখ করেন তিনি।

আরও পড়ুন : শুভেন্দু, সৌগত-সহ ৫ সাংসদের বিজেপিতে আসা সময়ের অপেক্ষা! বিস্ফোরক দাবি অর্জুনের

একই সঙ্গে, সেখানে শ্রাবন্তী রায় সিনহা নামে এক মহিলার উল্লেখ করেন শশী পাঁজা। তিনি জানান, এই মহিলার সঙ্গে অর্জুন সিং-এর বিয়ের সার্টিফিকেট রয়েছে। কিন্তু তারপরেও প্রার্থী হিসেবে দেওয়া হলফনামায় স্ত্রী হিসেবে শ্রাবন্তীর নামের উল্লেখ নেই। তার বদলে অন্য একজনের নাম উল্লেখ রয়েছে। এই কথা জানিয়ে শশী পাঁজা বলেন, কেন একজন মহিলাকে স্বীকৃতি দেওয়া হচ্ছে না! একইসঙ্গে জানান, তাঁদের একটি সন্তানও রয়েছে। কিন্তু একজন শিশুর পরিচয় গোপন রাখার গুরুত্ব বিচার করে তার নাম সাংবাদিক বৈঠকে উল্লেখ করেননি শশী।

একইসঙ্গে তিনি বলেন, অর্জুন সিং কয়েকদিন আগে তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়ের বিরুদ্ধে অপমানজনক কথা বলেছিলেন। যিনি দলে রয়েছেন, তিনি দল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করবেন এ কথা বলেন অর্জুন। বিষয়টি এমন দাঁড়ায় যে পরেরদিন সৌগত রায়কে সাংবাদিকদের জানাতে হয় যে, “মরে যাবেন তবু বিজেপিতে যাবেন না”। এই ঘটনা উল্লেখ করে শশী বলেন, যিনি নিজেই সত্য প্রকাশ করেন না তিনি অন্যের বিষয়ে কীভাবে এই ধরনের কথা বলতে পারেন?

এ প্রসঙ্গে শশী পাঁজা বলেন, বিজেপিতে মহিলাদের কোনো সম্মান নেই এই ঘটনা আরো একবার সেটা প্রমাণ করল। এ বিষয়ে নাম না করে বিজেপি নেত্রী অগ্নিমিত্রা পলের মন্তব্যের উল্লেখ করেন তিনি। বলেন, কিছুদিন আগেই এক বিজেপি নেত্রী রাজ্যের মহিলাদের প্রতি অত্যন্ত অশালীন ইঙ্গিতপূর্ণ মন্তব্য করেন। যেখানে রাজ্যের মহিলা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ‘ওমেন এম্পাওয়ারমেন্ট’-এর বিষয়ে দেশের মধ্যে অত্যন্ত উল্লেখযোগ্য ভূমিকা গ্রহণ করেছেন। সেখানে কীভাবে একজন মহিলা হয়ে এত কুরুচিকর মন্তব্য করতে পারলেন ওই বিজেপি নেত্রী!
অর্জুন সিং সম্পর্কে তিনি যা যা তথ্য দিয়েছেন, তা সবই সোশ্যাল মিডিয়ায় রয়েছে। সুতরাং যেকোনো পরিস্থিতিতেই সেটি যে কেউ যাচাই করে দেখতেই পারেন বলেও জানান শশী পাঁজা।