কৃষক মৃত্যু নিয়ে মিথ্যে টুইট, দু’সপ্তাহ সরদেশাইকে ‘অফ এয়ার’ করল ইন্ডিয়া টুডে

কৃষক মৃত্যু নিয়ে টুইট করে বিপাকে সাংবাদিক ও সংবাদ উপস্থাপক রাজদীপ সরদেশাই । পরিস্থিতি এতটাই ঘোরালো হয়ে উঠেছে যে যে তার টুইটের বক্তব্য মিথ্যা প্রমাণিত হওয়ায় ইন্ডিয়া টুডে কর্তৃপক্ষ তাকে বসিয়ে দিল দুই সপ্তাহের জন্য। এমনকি কেটে নিল তার বেতন।
ঘটনার সূত্রপাত প্রজাতন্ত্র দিবসের দিন। সেদিন কৃষকদের ট্রাক্টর মিছিল নিয়ে যখন ধুন্ধুমার, তখন সরদেশাই টুইট করেন যে পুলিশের গুলিতে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। টুইটে রাজদীপ দাবি করেছিলেন , পুলিশের গুলিতে নবনীত সিং নামে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে ।এমনকি ওই মৃত কৃষকের ছবি ও তিনি পোস্ট করেন। তিনি আরও লেখেন, কৃষকরা আমায় বলেছে এই বলিদান বিফলে যাবেনা। যদিও ওই কৃষকের মৃত্যুর সঙ্গে পুলিশের গুলির কোনও সম্পর্ক ছিল না বলে জানা যায়। মৃত কৃষকের ময়নাতদন্তের রিপোর্টেই তা স্পষ্ট হয়ে যায়।
এরপরই বিষয়টি নিয়ে কড়া পদক্ষেপ নেয় ইন্ডিয়া টুডে কর্তৃপক্ষ। তারা এই অভিজ্ঞ সাংবাদিককে আগামী দুই সপ্তাহের জন্য ‘অফ এয়ার’ করেছে। এর ফলে আগামী দুই সপ্তাহ তিনি কোনও সংবাদ প্রচার করতে বা উপস্থাপনা করতে পারবেন না। এমনকি তাঁর এক মাসের বেতন কেটে নেওয়া হয়েছে।
তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, তার মতো একজন অভিজ্ঞ সাংবাদিক যেভাবে দায়িত্বজ্ঞানহীন ভাবে এই টুইট করেছেন তা মুহূর্তে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে। যার দায়ভার তিনি এড়াতে পারেন না। যদিও সত্য সামনে আসতেই তিনি সেই টুইট ডিলিট করেন। কিন্তু ততক্ষণে যা হওয়ার হয়ে গিয়েছে। তার সেই টুইট কৃষকদের সেই আন্দোলনে যেন ঘৃতাহুতি দেয় এবং মিথ্যা গুজব ছড়ানোর অভিযোগে ততক্ষণে তিনি নিশানায়।
তার এই কীর্তি নতুন নয় । এর আগে প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায় যখন মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছেন, তখন তিনি টুইট করে বসেন যে প্রণববাবু মারা গিয়েছেন। পরে নিজের ভুলের জন্য তিনি ক্ষমা চেয়ে নেন। কিন্তু তার মতো একজন অভিজ্ঞ সাংবাদিকের এই দায়িত্বজ্ঞানহীন টুইট ভালোভাবে নেয়নি ইন্ডিয়া টুডে কর্তৃপক্ষ। তার বিরুদ্ধে আরও অভিযোগ, কৃষক আন্দোলনের দিন ঘটনাস্থল থেকে ইন্ডিয়া টুডের অন্য এক সাংবাদিকের সঙ্গে তিনি সরাসরি কথা বলেন। সেখানে তিনি বলেন , নবনীতের এই মৃত্যু কৃষক আন্দোলনের এক মাইলফলক হয়ে থেকে যাবে । যদিও তার ঘণ্টাখানেকের মধ্যে তিনি আরও একটি ভিডিও পোস্ট করেন। সেখানে স্পষ্ট দেখা যায় যে ওই কৃষক ট্রাক্টর উল্টে মারা গিয়েছেন। পুলিশের গুলির সঙ্গে তার মৃত্যুর কোনও সম্পর্কই নেই।
এরপরই শুরু হয় সমালোচনা ।
বিজেপির কপিল মিশ্র টুইট করে জানিয়ে দেন, সরদেশাই যে ভিডিওটি পোস্ট করেছেন তাতেই তার বক্তব্য মিথ্যা প্রমাণ হয়ে গিয়েছে। তিনি মিথ্যা গুজব ছড়িয়ে পরিস্থিতি ঘোরালো করে তোলার চেষ্টা করছেন। তিনি ইচ্ছে করে পুলিশের বিরুদ্ধে অপপ্রচার করছেন।
অমিত মালব্য টুইট করেন, সরদেশাই কে বরখাস্ত করা হোক ।
বিশেষজ্ঞদের মত, এই বিষয়ে নিজেদের পিঠ বাঁচাতে এমন কড়া পদক্ষেপ নিল ইন্ডিয়া টুডে কর্তৃপক্ষ।