‘খেলা হবে তো, ধোলাই হবে’ তৃণমূলকে তীব্র আক্রমণ রাহুল সিনহার

‘খেলা হবে তো, ধোলাই হবে৷ খেলা হবে খেলা হবে বলা মানে গণতান্ত্রিক অধিকার হরনের চেষ্টা হবে৷ তবে খেলার প্লেয়ার নেই। যারা বড় বড় কথা বলছেন তারা কতক্ষণ আছেন দলে তা নিয়ে ভাবতে শুরু করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। কে তৃণমূল কংগ্রেস আর কে তৃণমূল কংগ্রেসের মধ্যে তা বুঝতে পারছেন না মুখ্যমন্ত্রী।’ কোচবিহারে রবিবার এভাবেই তীব্র ভাষায় তৃণমূল কংগ্রেসকে আক্রমণ শানালেন বিজেপি নেতা রাহুল সিনহা।

আরও পড়ুন-ব্যাঙ্কিং সমস্যার সমাধান বেসরকারিকরণ নয়, সরব প্রাক্তন RBI গভর্নর

বিজেপি পার্টি অফিসে সাংবাদিক বৈঠক করে রাহুল বলেন, “তৃণমূল কংগ্রেস কাকে প্রার্থী করবেন তাই নিয়ে ভাবছেন এদিকে বিজেপির প্রতিটি কেন্দ্রে প্রায় দশ থেকে পনেরো জন দাবিদার।’ যদিও প্রার্থী নিয়ে কোনও আলোচনা হয়নি বলে জানিয়েছেন রাহুল সিনহা। তিনি এদিন বলেন, কোনো কেন্দ্রে যিনি প্রার্থী হবেন তার গ্রহণযোগ্যতা ও জেতার ক্ষমতা আছে কিনা দুটি দিকই দেখা হবে৷ এছাড়াও রাজপ্রাসাদে কেন্দ্রের সাংস্কৃতিক মহোৎসবে গ্রেটারদের আন্দোলন প্রসঙ্গে রাহুল সিনহা বলেন, ‘বংশীবদন বর্মন তৃণমূল কংগ্রেসের হয়ে খেলছেন। তাই বংশীবদন বাবুদের আবেদন তৃণমূল কংগ্রেস দ্বারা পরিচালিত হবেন না৷’ রাহুল সিনহার পরামর্শ, সমাজের জন্য সঠিক ভাবে আন্দোলন করুন। কোচবিহারের কামাক্ষাগুড়ি হয়ে আজ আলিপুরদুয়ার যায় পরিবর্তন যাত্রার রথ। কোচবিহারে পরিবর্তন যাত্রা কর্মসূচীতে ১১ ফেব্রুয়ারি থেকে ছিলেন রাহুল সিনহা। কোচবিহার থেকে আজ তিনি রওনা হন আলিপুরদুয়ারের বাবুরহাটের সভার জন্য।

Advt