বিশ্বব্যাপী কোভিশিল্ড ভ্যাকসিন সরবরাহের অনুমোদন দিল WHO

বিশ্বব্যাপী করোনা টিকা সরবরাহ করার অনুমোদন পেল ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট। ছাড়পত্র দিয়েছে হু। সেরামের পালকে যোগ হল নতুন পালক। কোভিশিল্ড প্রস্তুতকারক সংস্থা অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রোজেনেকা এবং পুনের সেরাম ইনস্টিটিউট। বিশ্বে আর্থিক পিছিয়ে পড়া দেশগুলিতে যাতে করোনার টিকা পৌঁছে দেওয়া যায়, সেই কারণেই WHO-এর এই তৎপরতা। ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট এবং দক্ষিণ কোরিয়ার অ্যাস্ট্রাজেনেকা-এসকেবিও-র তৈরি অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিন জরুরি ভিত্তিতে ব্যবহারে অনুমোদন দিয়েছে হু।

আরও পড়ুন-মধ্যপ্রদেশে ব্রিজ ভেঙে খালে পড়ল বাস, ভয়াবহ দুর্ঘটনায় মৃত ৩২

ফাইজারের পর অ্যাস্ট্রাজেনেকা ভ্যাকসিন হল দ্বিতীয় টিকা যাকে ছাড়পত্র দিল World Health Organisation। সোমবারই এই ঘোষণা করে হু। রাষ্ট্রসংঘের কোভ্যাক্স কর্মসূচিতে লক্ষ লক্ষ করোনা টিকার ডোজ বিশ্বব্যাপী দেশে পাঠানো হবে। WHO’র সহকারী ডিরেক্টর জেনারেল (মেডিসিন) ডা. মারিয়াঞ্জেলা সিমাও জানিয়েছেন, যে সমস্ত দেশগুলির টিকা তৈরি করার কাঠামো নেই তারা এবার এই কর্মসূচিতে স্বাস্থ্যকর্মী ও সাধারণ মানুষকে টিকা দিতে পারবে। ইতিমধ্যেই বিশ্বের ১৯০টি দেশ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এই কর্মসূচিতে যোগ দিয়েছে।

কিন্তু এখনও অনেকে দেশই গণ টিকাকরণ কর্মসূচি শুরু করতে পারেনি। এমনকী ধনী দেশগুলিও ভ্যাকসিনের স্বল্পতা নিয়ে ভুগছে। তবে কোভিশিল্ড ভ্যাকসিন বিশ্বের ৫০টিরও বেশি দেশে অনুমোদিত হয়েছে। তার মধ্যে ব্রিটেন, ভারত, আর্জেন্টিনা, মেক্সিকো রয়েছে। ফাইজার টিকার তুলনায় এটির দাম কম।

Advt