ফিরলেন ‘মূলস্রোতে’! ভোটের মুখে তৃণমূলের জাতীয় মুখপাত্রের গুরুত্বপূর্ণ পদে জিতেন্দ্র তিওয়ারি

মাসদুয়েক পর ফের নতুন দায়িত্ব নিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসে (TMC) গুরুত্ব পেলেন আসানসোল (Asansol) পুরনিগমের প্রাক্তন মেয়র তথা পাণ্ডবেশ্বরের বিধায়ক জিতেন্দ্র তিওয়ারি (Jitendra Tiwari)।

এ রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনের মুখে ফের ‘সক্রিয়’ হতে চলেছেন জিতেন্দ্র। তৃণমূল সূত্রে খবর, পাণ্ডবেশ্বরের এই বিধায়ককে দেওয়া হয়েছে জাতীয় মুখপাত্র বা ‘ন্যাশনাল স্পোকসম্যান’-এর দায়িত্ব। দায়িত্ব পেয়ে জিতেন্দ্র বলছেন, ‘‘আমি দলনেত্রীর কাছে কৃতজ্ঞ।’’

আরও পড়ুন-লাভ হলো না দীনেশের, গুজরাতের দুই রাজ্যসভা আসনে প্রার্থী ঘোষণা বিজেপির

কিছুদিন ধরেই জাতীয় স্তরের একাধিক টেলিভিশনে তৃণমূল কংগ্রেসের তরফে জিতেন্দ্র তিওয়ারিকে তৃণমূলের হয়ে রাজনৈতিক বিতর্কে অংশ নিতে দেখা যাচ্ছিল। নতুন দায়িত্ব পাওয়ার পর তৃণমূল নেতা জিতেন্দ্র তিওয়ারি বলেছেন, “আমি কৃতজ্ঞ মুখ্যমন্ত্রী তথা দলনেত্রীর কাছে। তিনি আমার উপর ভরসা রেখে যে নতুন দায়িত্ব দিয়েছেন তা অবশ্যই আমি পালন করে আমার যোগ্যতাকে প্রমাণ করার চেষ্টা করব। প্রতিপক্ষ নানা মিথ্যা অভিযোগ তুলে ধরছে। সেগুলোর সমানভাবে দলের পক্ষ থেকে খণ্ডন করবো।”

প্রসঙ্গত, ২০২০ সালের ১৬ ডিসেম্বর হঠাৎ আসানসোলের উন্নয়ন নিয়ে প্রশ্ন তুলে প্রথমে আসানসোল পুরনিগমের পুর প্রশাসক থেকে পদত্যাগ করেছিলেন জিতেন্দ্র তিওয়ারি। পরে দলের জেলা সভাপতির পদও ছেড়ে দেন। কিন্তু মাত্র দু’দিনের মধ্যেই তিনি কলকাতায় রাজ্যের মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসের সঙ্গে কথা বলে ভুল স্বীকার করে আবার দলে ফিরে আসেন। তারপর তিনি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee) ও দলীয় সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) সঙ্গে দেখা করে দলের কাজকর্ম শুরু করেন।
কিছুদিন আগে কলকাতায় হিন্দি-সহ বিভিন্ন ভাষার বুদ্ধিজীবী ও সংশ্লিষ্ট সংগঠনের প্রতিনিধিদের সম্মেলনে সুব্রত বক্সী ও অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাশে বসে থাকতে দেখা গিয়েছিল জিতেন্দ্র তিওয়ারিকে।

Advt