বিজেপিতে যোগ দিলেও মমতাই তাঁর দিদি, বললেন যশ! দিলীপকে বিঁধলেন নুসরত

খুব কাছের “বন্ধু” যশ-এর গেরুয়া যোগ দিলেও বিজেপি (BJP) রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষকে (Dilip Ghosh) স্বাভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতেই আক্রমণ শানালেন সাংসদ (MP)-অভিনেত্রী (Actress) নুসরত জাহান (Nusrat Jahan)। মুখ্যমন্ত্রী (CM) মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে (Mamata Banerjee) নারী নিরপত্তা নিয়ে কটাক্ষ করেছিলেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি। তারই পাল্টা দিয়ে টুইটে দিলীপ ঘোষকে বিঁধেছেন বসিরহাটের তৃণমূল (TMC) সাংসদ নুসরত। একইসঙ্গে তিনি বুঝিয়ে দিয়েছেন, বন্ধুত্ব আর রাজনীতি তিনি মেলাবেন না।

টুইটে আক্রমণ করে নুসরত গত বছর ৩১ জানুয়ারি দিলীপ ঘোষের করা একটি মন্তব্য মনে করিয়েছেন।অভিনেত্রী-সাংসদ লেখেন, “আমাদের ছেলেরা ঠিক কাজই করেছে। ওই মহিলার ভাগ্য ভাল। হেনস্থা ছাড়া তাঁকে আর কিছু করা হয়নি। প্রতিবাদ করলেই মহিলাদের এভাবে চরিত্রহনন করে বিজেপি। বলে রাখি, গত বছর ৩১ জানুয়ারি দিল্লির জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে প্রতিবাদরত এক মহিলার হাত থেকে পোস্টার ছিনিয়ে নিয়েছিলেন বিজেপি কর্মীরা। সেই ঘটনাতেই এই প্রতিক্রিয়া জানিয়েছিলেন দিলীপ ঘোষ। আবারও লজ্জাজনক মন্তব্য”।

দিলীপ ঘোষের ঠিক কোন মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে এমন কড়া ভাষায় টুইটে প্রতিক্রিয়া দিলেন নুসরত? রাজ্য বিজেপি সভাপতি মুখ্যমন্ত্রীকে নিশানা করে বলেছিলেন, “তৃণমূল কর্মীরা বলেন তাঁদের নেত্রী মহিলা বলে তাঁকে আক্রমণ করা হয়। কিন্তু আপনারই বলুন, একজন মহিলা আরেকজন মহিলার চরিত্রের দিকে কী করে আঙুল তুলতে পারেন? এই রাজ্যে দিদিমণি ধর্ষণের ক্ষতিপূরণ বেঁধে দিয়েছেন। ২০ হাজার, ৪০ হাজার, ৫০ হাজার।”

বন্ধু যশের দাশগুপ্তের (Josh Dasgupta) বিজেপিতে যোগদানের ঠিক আগে দিলীপ ঘোষকে একহাত নিয়ে এই টুইট করেছিলেন নুসরত। তিনি তৃণমূলের সাংসদ ও জাতীয় মুখপাত্র। আবার বন্ধু যশ ঢাকঢোল পিটিয়ে বিজেপিতে! তবে দু’জনেই জানিয়েছেন রাজনীতিতে পৃথক দল হলেও তাঁদের বন্ধুত্বে কোনও প্রভাব পড়বে না। শুধু তাই নয়, এককদম এগিয়ে নিজেকে এখনও দিদির মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভাই বলে দাবি করেন যশ।

তিনি বলেন, ”আমি এখনও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে সম্মান করি। আমি এখনও নিজেকে ওনার ভাই বলি।” আর বন্ধু নুসরত প্রসঙ্গে অভিনেতা বলেন, ”নুসরত আমার বন্ধু। আমাদের বন্ধুত্ব জীবিকার সূত্রে। আমাদের পেশা অভিনয়। নুসরত তাঁর মতাদর্শে তৃণমূলে রয়েছে। আমি আমার মতাদর্শে বিজেপিতে। আমার আরেক বন্ধু মিমিও (Mimi Chakraborty) তৃণমূলে রয়েছেন। কিন্তু আমরা আবার একসঙ্গে কাজ করব। রাজনীতির রঙ এখানেই থাক। টলিউডে রাজনীতির রঙ না লাগানোই ভালো।”

Advt