দূরপাল্লার ট্রেনে সাধারণ স্লিপার কমিয়ে কম ভাড়ার এসি কোচ জোড়ার ভাবনা

দূরপাল্লার ট্রেনে সাধারণ স্লিপার কোচের সংখ্যা কমানোর পরিকল্পনা নিয়েছে রেল (Indian Railways)। বদলে  সেখানে এসি থ্রি টিয়ার ইকেনমি ক্লাস (AC three-tier economy class coach) জোড়া হবে। নতুন এই পরিকল্পনার কথা জানিয়েছে রেল।  এই  নতুন ধরনের কোচগুলি তৈরি হয়েছে পাঞ্জাবের কাপুরথালা রেল কোচ ফ্যাক্টরিতে(kapoorthala railway coach factory)। তবে এখনও পরীক্ষা নিরীক্ষার স্তরেই আছে এই নবনির্মিত কামরাগুলি। আপাতত  এই কোচগুলির সুরক্ষা ব্যবস্থা খতিয়ে দেখতে লখনউয়ের আরডিএসওতে পাঠানো হয়েছে। রেলের রিসার্চ ডিজাইনস অ্যান্ড স্ট্যান্ডার্ডস অর্গানাইজেশন নতুন ডিজাইনের কোচ পরীক্ষা করে তবেই বাজারে ছাড়ার অনুমতি দেয়। রেল বোর্ড সূত্রে জানা গিয়েছে, আরডিএসও খুব শিগগির এই ধরনের নতুন কোচ চালানোর অনুমতি দেবে। গরিব রথ এক্সপ্রেসে এসি থ্রির যাত্রা শুরু হলেও এই এসি থ্রি টিয়ার ইকোনমি ক্লাসের কোচ তার থেকে আলাদা ও উন্নতমানের হচ্ছে, এমনটাই দাবি রেলের। আরডিএসও-র অনুমতি পেয়ে গেলে চলতি বছরে আরও আড়াইশো এই ধরনের কোচ তৈরি করবে কাপুরথালার কোচ ফ্যাক্টরি।

নতুন এই কোচে ৮৩টি বার্থ থাকবে। যেখানে এসি থ্রি টিয়ারে সাধারণত ৭২টি বার্থ থাকে। অর্থাৎ একটি কোচে ১১টি বার্থ বেশি থাকবে। ফলে বেশি সংখ্যক যাত্রী যাত্রা করতে পারবেন। আর এই আয় বাড়ায় এসি থ্রি টিয়ার ইকোনমি ক্লাসের ভাড়া কমিয়ে দেওয়া হবে। ফলে সেই ভাড়া এখনকার এসি থ্রি টিয়ারের ভাড়ার চেয়ে কমে যাবে। নতুন এই কোচ হাল্কা ও মজবুত বলে রেল জানিয়েছে। প্রতিটি বার্থে রয়েছে স্ন্যাকস টেবিল, চার্জিং পোর্ট, রিডিং লাইট। তাছাড়া বয়স্ক এবং অসুস্থ ব্যক্তিদের কথা মাথায় রেখে আপার বার্থে চড়ার সিঁড়ি আরো চওড়া করা হচ্ছে। কোচে ফায়ার অ্যালার্ম, বিশেষভাবে সক্ষম যাত্রীদের কথা চিন্তা করে চওড়া দরজা, টয়লেট, পা দিয়ে চেপে টয়লেটের ট্যাপের ব্যবস্থা এমনকী আধুনিক আলোর ব্যবস্থা থাকছে এই নতুন ধরনের কোচে। সব মিলিয়ে কম ভাড়ায় যাত্রীদের এসি চড়ার আনন্দ মিলবে এই কোচে যাত্রা করে।

Advt