ফেরত আসেনি ফাইল: রাজভবনের অনুমোদন ছাড়াই উপাচার্য নিয়োগ

রাজভবনের অনুমোদন ছাড়াই আইনি ক্ষমতায় বারাসত রাষ্ট্রীয় বিদ্যালয়ের (Barasat State University) উপাচার্য (VC) নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে উচ্চ শিক্ষা দফতর। নতুন উপাচার্য হয়েছেন মহুয়া দাস (Mahua Das), যিনি উচ্চ শিক্ষা সংসদের সভাপতি। আর এই নিয়ে রাজ্যের রাজ্যপাল সংঘাতের সম্ভাবনা। 

বারাসত রাষ্ট্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য দায়িত্বে থাকা বাসব চৌধুরীর মেয়াদ শেষ হয়ে গিয়েছে। কিন্তু এখনও তিনিই পদে। উচ্চশিক্ষা দফতরের মতে, নয়া উপাচার্য নিয়োগের অনুমোদন চেয়ে রাজ্যপালের (Governor) কাছে ফাইল পাঠানো হয়েছিল। কিন্তু সেই ফাইল আর ফেরত আসেনি। ফলে বাধ্য হয়েই আগের উপাচার্যকেই কাজ চালিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়। রাজভবনে উপাচার্য নিয়োগ নিয়ে রাজ্যপালের সঙ্গে আলোচনা করতে যান উচ্চশিক্ষা দফতরের আধিকারিকরা। সূত্রের খবর, জগদীপ ধনকড় (Jagdeep Dhankhar) জানান, উপাচার্য নিয়োগের বিষয়টি আদালতে বিচারাধীন। সেই মামলার নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত ফাইল ছাড়া যাবে না। যদিও এই বৈঠক নিয়ে রাজভবনের তরফে কিছু জানানো হয়নি। এরপরই স্টেট ইউনিভার্সিটি আইন প্রয়োগ করে উপাচার্য পদে মহুয়া দাসকে নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি জারি করে উচ্চশিক্ষা দফতর। তাদের বক্তব্য, অবিলম্বে স্থায়ী উপাচার্য নিয়োগ না করা হলে, বারাসত রাষ্ট্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে অচলাবস্থা তৈরি হতে পারে। তাই এই সিদ্ধান্ত। আর এই নিয়ে এখন রাজ্যপাল বনাম রাজ্য সরকারের সংঘাতের আশঙ্কা করছেন অনেকেই।

Advt