গত লোকসভার ভাড়া  বাকি তাই এবার ভোটে  বাস দিতে চাইছে না মালিকরা

এখনি ভোট (West Bengal assembly election)ঘোষণা হলে ভোটের কাজে বাস পাওয়া মুশকিল হবে। এমনটাই জানিয়েছে বাস মিনিবাস সংগঠন। বেসরকারি বাস মিনিবাস (Mini Bus) মালিক সংগঠন কর্তাদের দাবি, গত লোকসভা (2019 Lok Sabha Election) ভোটে ব্যবহার হওয়া বাসের ভাড়াই এখনও মেলেনি। তাই ভোটের কাজ (West Bengal Assembly Election 2021) পরিচালনার জন্য পর্যাপ্ত পরিমাণ বাস (Bus) পেতে কালঘাম ছুটতে পারে নির্বাচন কমিশনের (Election Commission Of India।

সূত্রের খবর, ২০১৯ সালে লোকসভা ভোটের সময় প্রায় ৫ হাজার বাস এবং ১ হাজার মিনিবাস ভাড়া নেওয়া হয়েছিল। বেসরকারি বাস ও মিনিবাস মালিক সংগঠনের কর্তাদের দাবি, দু’বছর কেটে গেলেও ১০ থেকে ২০ শতাংশ বাসের ভাড়া এখনও মেটানো হয়নি। কবে তা মেটানো হতে পারে তেমন কোনও আশ্বাসও মেলেনি। বকেয়া ভাড়া না মেটানো হলে ভোটের জন্য আর বাস ছাড়তে তাঁরা রাজি নন। তা ছাড়া করোনার জন্য বহুদিন বন্ধ ছিল বাস পরিষেবা। এখন বাস চললেও তা পরিমাণে খুব সীমিত সংখ্যায় চলছে। আনলক পর্ব পেরিয়ে এখন দিনে গড়ে সাড়ে ৩ হাজার বাস ও সাড়ে ৪০০ মিনি বাস চলছে।

এই অবস্থায় বাসের ভাড়া দিন প্রতি ৫০০ টাকা করে বাড়ানোরও দাবি জানিয়েছেন বাস সংগঠনের কর্তারা। তাঁদের আরও দাবি, চালক ও সহকারী চালককে দৈনিক ৫০০ টাকা করে মজুরি দিতে হবে।

যদিও এই দাবি মানা হবে কিনা, সে ব্যাপারে নির্বাচন কমিশনের তরফ থেকে স্পষ্টভাবে কিছু জানানো হয়নি। তবে দাবি মানলেও বাস পাওয়া যাবে কিনা, তা নিয়ে সংশয় থেকেই যাচ্ছে।

Advt