বিজেপি নেতার রহস্যমৃত্যুর কারন জানতে দিনহাটায় যাচ্ছেন বিবেক দুবে

স্থানীয় এক বিজেপি নেতার মৃত্যুর ঘটনা খতিয়ে দেখতে দিনহাটায় যাচ্ছেন নির্বাচন কমিশনের (ECI) বিশেষ পুলিশ পর্যবেক্ষক বিবেক দুবে (Vivek Dubey)।

কোচবিহারের দিনহাটায় (Dinhata) পশু হাসপাতালের বারান্দা থেকে বুধবার সকালে উদ্ধার হয় দিনহাটার বিজেপির (BJP)শহর মণ্ডলের সভাপতি অমিত সরকারের (Amit Sarkar) ঝুলন্ত দেহ৷ এই মৃত্যু ঘিরে রহস্য দানা বেঁধেছে৷ ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হওয়ার পর বিজেপির তরফে অভিযোগ তৃণমূল (TMC) এই খুনের পিছনে রয়েছে। বিজেপি নেতার রহস্য মৃত্যুতে রণক্ষেত্র হয়ে ওঠে গোটা দিনহাটা৷ পুড়েছে তৃণমূলের কার্যালয়৷ পুলিশ বাধ্য হয় লাঠিচার্জ, কাঁদানে গ্যাসের সেল ফাটাতে৷

এবার পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে সেই দিনহাটায় যাচ্ছেন নির্বাচন কমিশনের বিশেষ পুলিশ পর্যবেক্ষক বিবেক দুবে। এই মৃত্যুর কী কারণ, তা জানতে বুধবারই দিনহাটায় যাচ্ছেন দুবে।

দিনহাটার এই বিজেপি নেতার মৃত্যু নিয়ে ভোটের আবহে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে দিনহাটা। এর পিছনে পরিকল্পিত চক্রান্ত রয়েছে বলে অভিযোগ এনেছেন দিনহাটার তৃণমূল বিধায়ক উদয়ন গুহ। তাঁর বক্তব্য, “বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে এখনই CID-র তদন্ত প্রয়োজন। ওরা তদন্ত করে দেখুক, কারা এই মৃত্যুর ঘটনার পিছনে রয়েছে”৷ উদয়নবাবু সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট করে লিখেছেন, “প্রয়াত অমিত সরকারের ময়নাতদন্তের রিপোর্ট ও সুইসাইডাল নোট দ্রুততার সঙ্গে প্রকাশ করে চক্রান্তকারীদের মুখোশ খুলতে হবে।”

আরও পড়ুন:‘টাউকটে’ : আছড়ে পড়তে পারে ঘূর্নিঝড়

সূত্রের খবর, কমিশন
এই ঘটনায় রাজনৈতিক যোগ উড়িয়ে দেয়নি৷ সে কারনেই জাঁদরেল পুলিশ- পর্যবেক্ষক বিবেক দুবেকে দিনহাটা পাঠানোর সিদ্ধান্ত যথেষ্টই তাৎপর্যপূর্ণ। এ দিন শিলিগুড়িতে ছিল কমিশনের ফুল বেঞ্চ। ওখান থেকেই সরাসরি দিনহাটা যাচ্ছেন বিবেক দুবে। প্রয়াত বিজেপি নেতার পরিবারের দাবি, মঙ্গলবার রাতে কেউ তাঁকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায়। রাতে বাড়ি ফিরেই ফের বেরিয়ে যান তিনি। বুধবার সকালে পশু হাসপাতালের বারান্দায় তাঁকে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায়।এই দৃশ্য দেখে গ্রামবাসীরা ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন৷ হিংসাত্মক বিক্ষোভের মুখে পড়েন পুলিশ কর্তারা। রণক্ষেত্রের চেহারা নেয় দিনহাটা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে রীতিমতো হিমশিম খেতে হয় পুলিশকে।

Advt