এবার থেকে শোভন সংক্রান্ত কোনও প্রশ্নের জবাব তিনি দেবেন না, স্পষ্ট জানালেন রত্না

বেহালা পূর্বের তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী রত্না চট্টোপাধ্যায়। এতদিন পর্যন্ত তিনি ‘আমার স্বামী’ এবং ‘আমার সন্তানের বাবা’ বলে পরিচয় দিয়ে এসেছেন শোভন চট্টোপাধ্যায়কে। কিন্তু বুধবার তিনি সংবাদমাধ্যমের সামনে অন্যরকম কথা বললেন। তিনি সংবাদমাধ্যমকে বলেন, এরপর থেকে শোভন সংক্রান্ত কোনও প্রশ্নের জবাব তিনি দেবেন না।

দীর্ঘদিন ধরে শোভন-রত্নার বিবাহ বিচ্ছেদের মামলা চলছে। তাঁরা এখনও স্বামী-স্ত্রী। তৃণমূলের নির্বাচনী ইস্তাহার নিয়ে মঙ্গলবার ১২০ নম্বর ওয়ার্ডের রায় বাহাদুর রোডে তৃণমূলের কার্যালয়ে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়েছিলেন রত্না। সেখানে নির্বাচনের মুখে শোভনের অনুপস্থিতিতি নিয়ে প্রশ্ন করা হয় তাঁকে। সেই সময় রত্না স্পষ্ট উত্তর দেন, “শোভন চট্টোপাধ্যায়কে নিয়ে কোনও প্রশ্ন করবেন না আমাকে। তিনি এখন আর আমার জীবনে নেই। শোভনকে নিয়ে কোনও কথাও শুনতে চাই না আমি।”

আরও পড়ুন-প্রতিটি ভোটগ্রহণ কেন্দ্রই হবে একতলায়, জানালেন মুখ্য নির্বাচন কমিশনার

সম্প্রতি বেহালা পূর্বের প্রার্থীপদ নিয়ে অসন্তোষের জেরে বিজেপি ত্যাগ করেছেন শোভন চট্টোপাধ্যায় এবং তাঁর বান্ধবী বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই কেন্দ্রে বিজেপির প্রার্থী হয়েছেন তারকা মুখ পায়েল সরকার। শোভনকে প্রার্থী না করা নিয়ে দলীয় সূত্রে খবর, শোভনকে বেহালা পূর্বে প্রার্থী করলে রাজনীতির চেয়ে তাঁর ব্যক্তিগত ‘কেচ্ছা’ নিয়েই বেশি চর্চা হত। তাই ইচ্ছাকৃত ভাবেই তাঁকে বাদ দেওয়া হয়েছে। তাই বেহালা পূর্বের প্রার্থী না হতে পেরে শোভন-বৈশাখী দু’জনে দলের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করলেও, সে নিয়ে মাথা ঘামায়নি কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব।

Advt