এপ্রিলেই করোনার দ্বিতীয় ঢেউ-এ তছনছ হবে ভারত, আক্রান্ত হবে ২৫ লক্ষ, রিপোর্ট স্টেট ব্যাঙ্কের

ভয়ঙ্কর তথ্য প্রকাশ করেছে স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া’র এক সমীক্ষা রিপোর্ট ৷

এই রিপোর্টে বলা হয়েছে, এপ্রিল মাসেই করোনাভাইরাসের ‘সেকেন্ড ওয়েভ’ তছনছ করতে পারে ভারতকে৷ আক্রান্ত হতে পারে প্রায় ২৫ লক্ষ৷ বলা হয়েছে,

◾স্রেফ লকডাউন করে আগামী সংক্রমণ ঠেকানো যাবেনা৷
◾একমাত্র ঢালাও ভ্যাকসিন-ই এই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে পারে৷

দেশে ক্রমশই জাঁকিয়ে বসছে করোনার সংক্রমণ। ভারতের বহু এলাকায় আংশিক লকডাউন বা নাইট কার্ফু চালু হয়েছে৷ বৃহস্পতিবার ৫০ হাজারের গণ্ডি পেরিয়ে গিয়েছে গত ২৪ ঘণ্টার সংক্রমণ। সংক্রমণের এই ভয়াবহ চিত্র দেখে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, দেশে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়েছে। বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে অনেকটাই সহমত হয়েছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক।

আর এই আতঙ্কের আবহেই এক রিপোর্ট প্রকাশ করে স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া জানিয়েছে, করোনা’র দ্বিতীয় ঢেউ আসতে পারে এপ্রিল মাসের দ্বিতীয়ার্ধে৷ কমপক্ষে ১০০ দিন এই দ্বিতীয় ঢেউ থাকবে বলেও জানানো হয়েছে এই রিপোর্টে।

স্টেট ব্যাঙ্কের এই রিপোর্ট জানিয়েছে, ২৩ মার্চ পর্যন্ত সংক্রমণের গতি-প্রকৃতি বিচার করে এই ধারনাই হচ্ছে, করোনার ‘সেকেণ্ড ওয়েভ’-এ ভারতের প্রায় ২৫ লক্ষ মানুষ আক্রান্ত হবেন৷ ২৮ পাতার এই রিপোর্টে সতর্কবার্তাও দেওয়া হয়েছে৷ বলা হয়েছে, স্থানীয় ভাবে বা এলাকাভিত্তিক লকডাউন করলে এবারের সংক্রমণ ঠেকানো যাবে না। পরিত্রাণের একমাত্র উপায়, শুধুমাত্র ব্যাপক টিকাকরণ৷ তবেই এই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব।

এদিকে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ভারতের ১৮টি রাজ্যে করোনার “ডবল মিউট্যান্ট ভ্যারিয়ান্ট” ইতিমধ্যেই ছড়িয়ে পড়েছে। ভিনদেশের ৩ স্ট্রেনের দরুন ভারতে করোনা সংক্রমণের হার ঊর্ধ্বমুখী।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক ২৪ ঘন্টা আগেই এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ভারতে ভ্যারিয়ান্ট কনসার্ন ও ডবল মিউট্যান্ট ভ্যারিয়ান্টের খোঁজ পাওয়া গিয়েছে৷ তবে শুধু এই কারনেই কোনও কোনও রাজ্যে দ্রুতগতিতে সংক্রমণ বৃদ্ধি পাচ্ছে কি’না, তা এখনও বোঝা যাচ্ছে না৷ এপিডিমিওলডিক্যাল স্টাডি, এর বিশ্লেষণের কাজ চালাচ্ছে।

ওদিকে, ইন্ডিয়ান সার্স কভ-২ জিনোমিক্স কনসরটিয়াম জানিয়েছে, ১০,৭৮৭ সংক্রমিতের জিনের গঠন বিন্যাস বের করে ৭৭১ রকম ভেরিয়ান্ট মিলেছে। করোনার তিন বিদেশি প্রজাতি, ব্রিটেন স্ট্রেন, দক্ষিণ আফ্রিকার মিউট্যান্ট স্ট্রেন ও ব্রাজিল স্ট্রেন্ট-এর মাধ্যমেই সংক্রমণ ছাড়াচ্ছে বলে মনে করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন- শ্রাবন্তীর রোড শো ঘিরে ধুন্ধুমার পুরুলিয়ায়, পুলিশ-বিজেপি সমর্থকদের সংঘর্ষ

Advt