‘ভোটের সময় তুই আমার পা জখম করেছিস’, নাম না করে শুভেন্দুকে কাঠগড়ায় তুললেন মমতা

নন্দীগ্রামের(Nandigram) বিরুলিয়াতে প্রচারে গিয়ে পায়ে চোট পাওয়ার পর বিজেপির বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের অভিযোগ তুলেছিলেন মমতা। এবার নাম না করে সরাসরি এই চোট লাগার জন্য শুভেন্দু অধিকারীকে(suvendu Adhikari) কাঠগড়ায় তুললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়(Mamata Banerjee)। জানিয়ে দিলেন, ‘নির্বাচনের সময় তুই আমার পা যখন করেছিস। তোমার নির্দেশ ছাড়া এটা হতে পারে না।’

সোমবার ক্ষুদিরাম মোড় থেকে ঠাকুরচক পর্যন্ত রোড শো করার পর বয়ালে একটি জনসভা করেন তৃণমূল নেত্রী। সেখানেই সরাসরি শুভেন্দু অধিকারীকে নিশানায় নিয়ে মমতা বলেন, ‘আমার খেলা খেলি ভদ্র ভাবে। কিন্তু আমার সঙ্গে কেউ লাগতে এসো না। আমার সঙ্গে লাগলে আমি আগুনের মত ঝরি। আমাকে আঘাত করলে আমি সিংহের মতো ঝাঁপিয়ে পড়ি।’ এরপরই শুভেন্দুকে তোপ দেগে মমতা বলেন, ‘আমি বাইরের মেয়ে? তুই বেটা হরিদাস কাঁথির ছেলে, কী করে বেড়াস, তুই কবে নন্দীগ্রামের ছেলে হলি! তুই তো দালালি করে গেছিস। সিপিএমের দালালি করেছিস, বিজেপির দালালি করেছিস।’

আরও পড়ুন:অসহায় প্রশাসন! বিধিভঙ্গে বাধা দেওয়ায় পুলিশকে জুতোপেটা করল বিজেপি সমর্থকরা

এরপর আক্রমণের ঝাঁঝ বাড়িয়ে মমতা আরো বলেন, ‘আমাকে তোরা চোট করেছিস। আমি চেপে গেছি ভদ্রতা করে। ইলেকশনের সময় তুই আমার পা জখম করেছিস। আজ আমায় হুইলচেয়ারে করে মিটিং করে যেতে হচ্ছে। এটা কষ্টকর তোমার নির্দেশ ছাড়া এটা হতে পারে না। কোনও নন্দীগ্রামের লোক করেনি বহিরাগত গুন্ডাদের দিয়ে এটা করেছ তুমি।’ যদিও মমতা বন্দ্যপাধ্যায়ের মন্তব্যের পাল্টা দিয়ে শুভেন্দু বলেন, ‘শেষবেলায় নাটক করছেন উনি। তবে এই নাটক লোকে আর খাবে না। লোক সব বুঝে গেছে।’ পাশাপাশি নন্দীগ্রামে পুলিশ ঢোকানোর ঘটনায় অধিকারী পরিবারের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ মমতার তুলেছেন সে প্রসঙ্গে বলেন, ‘নন্দীমা’ বইতে উনি যা লিখেছেন তা তাহলে মিথ্যা কথা।

Advt