শরদ পাওয়ারের সঙ্গে অমিত শাহের বৈঠক নিয়ে জোর চর্চা

মহারাষ্ট্রে রাজনৈতিক অস্থিরতা চলছে। তারসঙ্গে ভয়াবহ হচ্ছে রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি। যার মোকাবিলায় রবিবার থেকে নৈশ কার্ফু জারির সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধাব ঠাকরে। এই আবহে এনসিপি প্রধান শরদ পাওয়ারের সঙ্গে দেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহের গোপন বৈঠক নিয়ে জোর চর্চা শুরু হয়েছে। এই বিষয়ে দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে প্রশ্ন করা হলে তিনি অবশ্য বেশ ঘুরিয়ে উত্তর দিয়েছেন, শাহ জানিয়েছেন, ‘সব কিছু প্রকাশ্যে আনা ঠিক নয়।’
রাজ্যের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল দেশমুখকে নিয়ে অস্বস্তিতে পড়েছে মহারাষ্ট্র সরকার। তার বিরুদ্ধে তোলাবাজির অভিযোগ আনেন মুম্বইয়ের প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার পরমবীর সিং৷ মুখ্য়মন্ত্রী উদ্ভব ঠাকরেকে লেখা একটি চিঠিতে তিনি জানিয়েছেন, অনিল দেশমুখ প্রতিমাসে ১০০ কোটি টাকা করে তোলা তোলেন৷ পরমবীর সিংয়ের লেখা ওই চিঠিতে সচিন ওয়াজ়ের বিরুদ্ধেও অভিযোগ আনা হয়েছে৷ তিনি লিখেছেন, আম্বানির বাসভবনের সামনে থেকে বিস্ফোরক বোঝাই গাড়ি উদ্ধারের ঘটনায় ধৃত পুলিশ অফিসার সচিন ওয়াজকে তোলাবাজির কাজে ব্যবহার করতেন অনিল দেশমুখ৷ এই চিঠি প্রকাশ্যে আসায় যথেষ্ট অস্বস্তিতে পড়েছে মহারাষ্ট্র সরকার৷ অনিলকে বাঁচাতে স্বয়ং মাঠে নেমেছেন এনসিপি প্রধান শরদ পাওয়ার। এই পরিস্থিতিতে আগে বিজেপি অনিল দেশমুখের পদত্যাগ দাবি করেছিল।
মহারাষ্ট্রে ফের একবার ক্ষমতার বড়সড় রদবদল ঘটতে পারে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।
যদিও অমিত শাহের সঙ্গে পাওয়ারের বৈঠক জল্পনা বলেই উড়িয়ে দিচ্ছেন এনসিপির জাতীয় মুখপাত্র নবাব মালিক।

Advt