বিজেপি নয়, মহাগুরুর ক্যারিশ্মাতেই রোড শোয়ে ভিড়, মত বিরোধীদের

শেষ মুহূর্তের ভোট প্রচার। পয়লা এপ্রিল পশ্চিমবঙ্গে দ্বিতীয় দফার ভোট। বৃহস্পতিবার যে ৩০টি আসনে ভোটগ্রহণ হবে তার মধ্যে রয়েছে নন্দীগ্রাম এবং খড়গপুর সদর। আজ, মঙ্গলবার খড়গপুরে BJP-র তারকা প্রার্থী হিরণের সমর্থনে রোড শো করেন সুপারস্টার মিঠুন চক্রবর্তী। এরপর দক্ষিণ ২৪ পরগনার কাকদ্বীপ, হুগলির তারকেশ্বরে রোড শোয়ে করে বিকেলে নন্দীগ্রামে শুভেন্দু অধিকারীর সমর্থনে প্রচার করেন মিঠুন। এদিন মিঠুনের রোড শোয়ে ভিড় চোখে পড়েছে। কিন্তু এর প্রভাব কি ভোটদানের মেশিনে পড়বে? বলে রাখা ভালো, এর আগে যখন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা যখন সভা করেছেন তখন কার্যত ফাঁকা মাঠে সভা করে গিয়েছেন। তবে মানুষ কি হিরো মিঠুনকে দেখার জন্যই ভিড় করেছেন? বিরোধীরা বলছেন, গেরুয়া শিবিরের ভিড় এটা নয়। কারণ, কেন্দ্রীয় নেতাদের নিয়ে এসেও ভিড় জমাতে পারছে না গেরুয়া শিবির। মহাগুরুর ক্যারিশ্মাতেই রোড শোয়ে ভিড়।

খড়গপুরে রোড শো’য়ে মিঠুন বলেন, ‘আমি হাইভোল্টেজ তারকা নই। একটাই কথা বলব,বাংলার সঙ্গে আমার সম্পর্ক হিরো আর ফ্যানের নয়। এঁদের সঙ্গে আমার হৃদয়ের সম্পর্ক। এঁনারা জানেন আমি তাঁদের কতটা ভালোবাসি, আর আমিও জানি তাঁরা আমাকে কতটা ভালোবাসেন’।

আরও পড়ুন-কথোপকথন ভাইরাল করাটা অপরাধ, প্রলয়কাণ্ডে বললেন মমতা

জমকালো রোড শো’য়ের মাঝেই হিরণ চট্টোপাধ্যায়ের পাশে দাঁড়িয়ে খানিকটা নাচতেও দেখা গেল মিঠুন চক্রবর্তীকে। দু’জনের গলায় দলের উত্তরীয়। রজনীগন্ধার মালা। চতুর্দিকে উড়ছে গেরুয়া আবীর। আর ‘জয় শ্রী রাম’ ধ্বনি। বিজেপির সমস্ত কর্মী এবং সমর্থকদের নিয়ে বহুক্ষণ চড়া রোদের মধ্যে ঘুরে ঘুরে রোড শো করতে দেখা যায় ফাটাকেষ্ট এবং হিরণকে।

সোমবারই হিরণের হয়ে খড়গপুরে প্রচার করেছিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সেদিনই হিরণ বলেন, এর আগে ঠিকমতো ভোট হয়নি খড়গপুরে। এবার হবে। এবং তিনি যথেষ্ট আশাবাদী বলেও জানান তিনি। এর আগে হিরণকে প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করার পরেই অমিত শাহ বিশাল রোড শো করেছিলেন সেখানে। অনেকের মতে রাজনীতিতে নবাগত বলেই হয়তো তাঁর হয়ে এত ঘনঘন প্রচার করছেন দলীয় নেতারা।

Advt