চুরি করতে ঢুকে বিপুল টাকা দেখে হার্ট অ্যাটাক চোরের !

চুরি করেছিল পেটের টানে। কিন্তু বুঝতে পারেনি যে এতটা টাকা ভরতে হবে ঝুলিতে! যা আশা ছিল, তার থেকে ঢের বেশি টাকা চুরি করতে পারল তারা৷ ফলে এত টাকা দেখে হার্ট অ্যাটাকই হয়ে গেল চোরের৷ তার চিকিৎসার পিছনেই খরচ করতে হল চুরির অর্ধেকের বেশি টাকা! ঘটনাস্থল উত্তরপ্রদেশের বিজনৌর৷
দুই চোর জোট বেঁধে করেছিল চুরি৷ এক চোর পুলিশের জালে ধরা পড়তেই ঘটনা প্রকাশ্যে এল৷ তাকে জেরা করে পুলিশ জানতে পেরেছে যে, ফেব্রুয়ারি মাসে কোটওয়ালি দেহত এলাকায় চুরি করে এই দুই চোর৷ সেখান থেকেই তুলে নিয়ে আসতে পারে প্রচুর অর্থ৷
বিজনৌর পুলিশ এসপি ধরম বীর সিং জানিয়েছেন যে, নবাব হায়দার নামে এক ব্যক্তির বাড়িতে ফেব্রুয়ারি মাসের ১৬ বা ১৭ তারিখ চুরির উদ্দেশ্য নিয়ে ঢুকে পড়ে দুই চোর৷ এরপর হায়দার সাহেব অভিযোগে জানান যে ৭ লক্ষ টাকা চুরি হয়ে গিয়েছে৷ পুলিশে অভিযোগ দায়ের হওয়ার পর থেকে শুরু হয় তদন্ত৷ এরপর দুই অভিযুক্ত চোরের খোঁজ পায় পুলিশ৷ তাদের নাম নৌশদ ও এজাজ৷ দু’জনের বয়সই তিরিশের কাছাকাছি৷ এদের মধ্যে একজন তখনও হাসপাতালে ভর্তি৷ অন্যজনকে নাঙ্গিয়া থানা এলাকার আলিপুর থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ৷ এক চোরের থেকে অন্য চোরের তথ্য পান পুলিশ কর্তারা!
আর সেখানেই জানা যায় যে এত টাকা পেয়ে একজন চোরের হার্ট অ্যাটাক হয়েছে। সে হাসপাতালে ভর্তি। আর তাকে বাঁচাতে চুরির অর্ধেক টাকাই খরচ হয়ে গিয়েছে। একেই বলে কপালের ফের।

Advt