‘বিজেপি হারছে তাই হতাশা থেকে নিষেধাজ্ঞা’, মমতার লড়াইয়ে পাশে দাঁড়ালেন অখিলেশ

শিবসেনা(Shivsena) তরফে নৈতিক সমর্থন জানানো হয়েছিল আগেই, এবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের(Mamata Banerjee) পাশে এসে দাঁড়ালেন সমাজবাদী পার্টির নেতা অখিলেশ যাদব(Akhilesh Yadav)। নির্বাচন কমিশনের(election commission) তরফে মুখ্যমন্ত্রীর প্রচারের ওপর নিষেধাজ্ঞার পর টুইটে তিনি জানিয়ে দিলেন, মমতার প্রচারে নিষেধাজ্ঞা জারি করা আসলে নির্বাচনী লড়াইয়ে বিজেপি(BJP) যে হারছে এটা সেই হতাশার প্রতীক।

মঙ্গলবার দুপুরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যখন গান্ধী মূর্তির পাদদেশে সত্যাগ্রহে বসেছেন ঠিক সেই সময় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবিসহ একটি টুইট করেন সমাজবাদী পার্টির নেতা অখিলেশ যাদব। টুইটে তিনি লেখেন, ‘পশ্চিমবঙ্গে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্বাচনী প্রচারের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা আসলে নির্বাচনে হারাতে বসা বিজেপির হতাশার প্রতীক। সমাজবাদী পার্টি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই সত্যাগ্রহে সাংকেতিকভাবে তাঁর পাশে রয়েছে।’

একইসঙ্গে তিনি আরো লেখেন, ‘আশা করব শ্মশান কবরস্থান নিয়ে ধর্মীয় বিভাজন মূলক বক্তব্য রাখা ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে নিরপেক্ষভাবে নির্বাচন কমিশন নিষেধাজ্ঞা জারি করবে।’

উল্লেখ্য, সম্প্রতি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দুটি মন্তব্যের জেরে নোটিস পাঠানো হয়েছিল কমিশনের তরফে। যার একটি ছিল কেন্দ্রীয় বাহিনীকে ঘেরাও প্রসঙ্গ এবং অন্যটি সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ভোট। এই দুই মন্তব্যের জেরে রাজ্য সম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ও শান্তি বিঘ্নিত হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছিল বিরোধীরা। অভিযোগের ভিত্তিতে গত ৭ এপ্রিল তৃণমূল নেত্রীকে পাঠানো হয় নোটিশ। ৯ তারিখ তার জবাব দেন মমতা। তবে মমতার উত্তরে সন্তুষ্ট না হওয়ার সোমবার ২৪ ঘন্টার জন্য তাঁর প্রচারের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়। কমিশনের এহেন সিদ্ধান্তকে পক্ষপাতদুষ্ট অভিযোগ তুলে মঙ্গলবার প্রতিবাদে ধরনায় বসে ছিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো। তাঁর সেই ধারণাকে সমর্থন করে এবার একে একে এগিয়ে এলেন জাতীয় স্তরের নেতারা।

আরও পড়ুন- শীতলকুচি যাচ্ছেন না মমতা, বুধবার মাথাভাঙাতে নিহতদের পরিবারের সঙ্গে মিলিত হবেন মুখ্যমন্ত্রী

Advt