পর্যাপ্ত ভ্যাকসিন নেই, ১৮-র ঊর্ধ্বে টিকাকরণ শুরু হলো মাত্র ৬ রাজ্যে

কেন্দ্রীয় সরকারের(central government) তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে ১ মে থেকে শুরু হচ্ছে ১৮ থেকে ৪৪ বছর বয়সী সকলকে ভ্যাকসিন দেওয়ার মহাযজ্ঞ। তবে কেন্দ্র নীতি নির্ধারণ করে দিলেও সমস্যা অনেক। আর সেই সমস্যার জেরেই দেশের মাত্র ৬টি রাজ্যে শুরু হলো ১৮ থেকে ৪৪ বছর বয়সীদের ভ্যাকসিন(vaccination) দেওয়ার কাজ। বেশিরভাগ রাজ্য সরকারের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে ভ্যাকসিনের অভাবে চালু করা যাচ্ছে না কেন্দ্রের এই নয়া নীতি।

ভ্যাকসিনের যোগান নিয়ে ইতিমধ্যেই সরব হয়েছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়(Mamata Banerjee)। মমতার সুরে সুর মিলিয়েই কেরল , পাঞ্জাব, গুজরাত, উত্তরাখণ্ড, অন্ধ্রপ্রদেশ, দিল্লি, মহারাষ্ট্রের মত রাজ্যগুলি স্পষ্ট জানিয়েছে এই রাজ্যগুলিতে সার্বিক ভাবে ১৮-৪৫ বছর বয়সিদের টিকাকরণের জন্য পর্যাপ্ত ভ্যাকসিন নেই। দিল্লিতে গণ টিকাকরণ শুরু করতে না পারা প্রসঙ্গে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল জানান, “এই কর্মসূচি শুরু হওয়ার জন্য যে পরিমাণ ভ্যাকসিন দরকার তা মজুত নেই, ফলে জনতার কাছে আমার আবেদন, কেন্দ্রীয় সরকারের কথা শুনে তারা যেন ভ্যাকসিন নেওয়ার জন্য লাইনে না দাঁড়ান। আগামী দু’দিনের তিন লক্ষ ভ্যাকসিন আসবে তার পরেই এই গণটিকাকরণ শুরু হবে।” একই সুরে বিবৃতি পেশ করেছেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরেও।

অন্যদিকে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আগেই জানিয়ে দিয়েছেন ৫ মে থেকে রাজ্যে শুরু হবে গণ টিকাকরণ। অর্থাৎ মোট পর্ব পুরোপুরি মিটে গেলেই শুরু হয়ে যাবে টিকাকরণ প্রক্রিয়া। সরকারের তরফে জানানো হয়েছে আজ এই মুহূর্তে ৪৫ বছরের ঊর্ধ্বে যারা রয়েছেন তাদের টিকাকরণ সম্পূর্ণ করার লক্ষ্যমাত্রা নেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন:গণনার আগের দিন রাজভবনে মিঠুন চক্রবর্তী! জল্পনা তুঙ্গে

অন্যদিকে, উত্তরপ্রদেশের ৭৫ টি জেলার মধ্যে মাত্র সাতটি জেলায় কেন্দ্রীয় শর্ত মেনে টিকা করন শুরু হয়েছে। এখানে আবার ভ্যাকসিন নেওয়ার জন্য লাইন পড়েছে চোখে পড়ার মতো। রাজস্থানে মাত্র তিনটি জেলা এবং গুজরাতে ১০ টি জেলা এবং উড়িষ্যাতে বিক্ষিপ্তভাবে শুরু হয়েছে কেন্দ্রীয় নীতি মেনে ১৮ ঊর্ধ্বদের টিকাকরণ।

Advt