বিধাননগরে এবার নজর কাড়ছে সর্বকনিষ্ঠ প্রার্থী তৃণমূলের রাখাল

ছাত্রজীবন থেকেই ডানপন্থী রাজনীতিতে বিশ্বাসী রাখাল

তখনও হয়নি ভোটার কার্ড। সেই কিশোর বয়স থেকেই রাজনীতিতে পদার্পণ সম্রাট বড়ুয়ার। ২০০৯ সালে তৃণমূল কংগ্রেসের একজন সামান্য বুথ কর্মী হিসেবে সক্রিয় রাজনীতিতে হাতেখড়ি। এরপর দলের অনুগত সৈনিক হিসেবে রাজনীতির মূলস্রোতের দিকে নিজেকে একটু একটু করে নিয়ে যাওয়া। এবার সরাসরি নির্বাচনী ময়দানে ঘাসফুল শিবিরের প্রার্থী ২৭ বছরের তরুণ তুর্কি সম্রাট। যিনি এলাকায় রাখাল নামেই বেশি জনপ্রিয়।

ছাত্রজীবন থেকেই ডানপন্থী রাজনীতিতে বিশ্বাসী রাখাল। মন দিয়ে তৃণমূলের ছাত্রসংগঠনও সে করে থাকে। এবার তারুণ্য এবং অভিজ্ঞতা সংমিশ্রণে তৃণমূল প্রার্থী যে তালিকা করেছে বিধাননগর পুরসভার, তার মধ্যে অন্যতম মুখ রাখাল। ৬ নম্বর ওয়ার্ড থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে।

বিধাননগর পুরসভা এলাকার মূল সমস্যা নিকাশি ব্যবস্থা। আগামিদিনে মানুষের ভোটে নির্বাচিত হতে পারলে সবচেয়ে আগে নিকাশি ব্যবস্থাকেই গুরুত্ব দিতে চায় রাখাল। এর পাশাপাশি ওয়ার্ড-এর সৌন্দর্যায়নের দিকেও নজর থাকবে তার। জায়গা পেলে একটি কমিউনিটি হলও ওয়ার্ডবাসীকে উপহার দিতে বদ্ধপরিকর রাখাল।

করোনা আবহের জন্য বড় কোনও প্রচার নয়। পালা পালা করে তাঁর সহকর্মীদের নিয়ে মানুষের বাড়ি বাড়ি প্রচার করছেন তৃণমূলের এই তরুণ তুর্কি। এটাই জনসংযোগে তাঁর মূল হাতিয়ার। ৬ নম্বর ওয়ার্ডের মানুষও চাইছেন, এবার জয় হোক সম্রাটের।

আরও পড়ুন- Suicide Update: বকখালির আত্মহত্যাকাণ্ডে ধৃত পাঁচজনের তিনদিনের পুলিশ হেফাজত

Previous articleSuicide Update: বকখালির আত্মহত্যাকাণ্ডে ধৃত পাঁচজনের তিনদিনের পুলিশ হেফাজত