Sc EastBengal: এগারো ম‍্যাচেও জয় অধরা এসসি ইস্টবেঙ্গলের

৮৮ মিনিট পর্যন্ত লড়াই করেও জামশেদপুর এফসি-র কাছে হেরে গেল এসসি ইস্টবেঙ্গল।

এগারো ম‍্যাচেও জয় এল না এসসি ইস্টবেঙ্গলের( Sc EastBengal)। মঙ্গলবার জামশেদপুর এফসির ( Jamshedpur fc) কাছে ১-০ গোলে হারল লাল-হলুদ ব্রিগেড।

৮৮ মিনিট পর্যন্ত লড়াই করেও জামশেদপুর এফসি-র কাছে হেরে গেল এসসি ইস্টবেঙ্গল। ০-১ গোলে হারল রেনেডি সিং-এর দল। খেলার শেষ লগ্নে গ্রেগ স্টুয়ার্টের কর্নার থেকে জামশেদপুরের হয়ে জয়সূচক গোলটি করেন ঈশান পান্ডিতা। সুপার সাব হিসেবে এবারের আইএসএলে গোল করা প্রায় অভ্যাসে পরিণত করে ফেলেছেন ঈশান। এই জয়ের ফলে ১১ ম্যাচে ১৯ পয়েন্ট নিয়ে এককভাবে লিগ শীর্ষে উঠে এল জামশেদপুর এফসি।

অন্যদিকে, পঞ্চম হারে যথারীতি লিগের লাস্টবয় এসসি ইস্টবেঙ্গল। হায়দরাবাদ ম্যাচ থেকে যে ফুটবল খেলছে দল, সেই ধারাই এদিন জামশেদপুরের বিরুদ্ধে বজায় রাখার চেষ্টা করে রেনেডি সিংয়ের প্রশিক্ষণাধীন লাল-হলুদ। রক্ষণ সংগঠিত রেখেই আক্রমণে উঠেছে ইস্টবেঙ্গল। কিন্তু গোলের সামনে জামশেদপুর খেলোয়াড়দের ভিড়ে সেভাবে সুবিধা করতে পারেনি তারা। প্রথমার্ধে জামশেদপুরেরই আধিপত্য ছিল। বল দখলের লড়াইয়েও এগিয়ে ছিলেন পিটার হার্টলে, গ্রেগরি স্টুয়ার্টরা। সাতটি কর্নার তারা আদায় করেছিল। কিন্তু ইস্টবেঙ্গলের জমাট রক্ষণে ওয়েন কোয়েলের দলের যাবতীয় আক্রমণ প্রতিহত হয়। গোলের সুযোগ পেয়েছিল ইস্টবেঙ্গলও। তা কাজে লাগাতে ব্যর্থ। দ্বিতীয়ার্ধে গোলের জন্য মরিয়া হয় জামশেদপুর। একের পর এক আক্রমণ আছড়ে পড়ে লাল-হলুদ রক্ষণে। জর্ডন মারের হেড ক্রসবারে লাগে। এর মধ্যেই চোট পেয়ে মাঠের বাইরে চলে যান ইস্টবেঙ্গল ডিফেন্ডার আদিল খান। তাঁর জায়গায় নামেন ডাচ মিডফিল্ডার সিডওয়েল। কিন্তু আদিল না থাকায় রক্ষণে ফাঁকফোকর তৈরি হয়। সেই সুযোগেই ৮৮ মিনিটে জামশেদপুর গোল পেয়ে যায়। পরিবর্ত খেলোয়াড় হিসেবে গোল করে দলকে জেতান ঈশান পান্ডিতা।

আরও পড়ুন:India Team: ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকা তৃতীয় টেস্টে প্রথম দিনের শেষে ১ উইকেট হারিয়ে ১৭ রান প্রোটিয়াদের, দুরন্ত ইনিংস বিরাটের

Previous articleHoroscope: কেমন যাবে আজকের দিন