সুদীপ অনুগামীদের রক্তদান শিবিরে হামলা, বিপ্লবকে হুঁশিয়ারি বিক্ষুব্ধ বিজেপি বিধায়কের

ত্রিপুরার (Tripura) রাজনীতিতে বিজেপির অন্দরে বরাবর মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবের (Biplab Dev) বিরোধী বলেই পরিচিত আগরতলার (Agartala) বিধায়ক সুদীপ রায় বর্মন (Sudip Roy Barman)। রাজ্যে রাজনৈতিক পালা বদলের কয়েক মাসের মধ্যেই মন্ত্রিসভা ত্যাগ করে বিজেপির (BJP) একজন সাধারণ বিধায়ক হিসেবেই রয়েছেন সুদীপ। এরপর থেকে বেলা যত বেড়েছে বিপ্লব আর সুদীপ গোষ্ঠীর দূরত্ব ততই দৃঢ় হয়েছে। গত কয়েক মাসে সেই ফাটল আরও বড় চেহারা নিয়েছে। ত্রিপুরায় গেরুয়া শিবিরের অন্দরে সুদীপ ও তাঁর অনুগামী নেতা-বিধায়করা কোণঠাসা। কেন্দ্রীয় নেতাদের হস্তক্ষেপেও মেটেনি বিবাদ।

তেইশের নির্বাচন যতই এগিয়ে আসছে, ততই সুদীপ রায় বর্মনকে নিয়ে রাজনৈতিক মহলে জল্পনা বাড়ছে, কবে দল ছাড়ছেন সুদীপ? তবে কি ফের তৃণমূলের আগরতলার বিধায়ক? সরাসরি এ ব্যাপারে মুখ না খুললেও, সেই যন্ত্রণা কিছুটা হলেও নতুন করে উস্কে দিলেন কট্টর বিপ্লব দেব বিরোধী বিক্ষুব্ধ বিজেপি বিধায়ক সুদীপ রায় বর্মন (Sudip Roy Barman)। রাজ্য বিজেপি নেতৃত্বের উপর চরম ক্ষোভ প্রকাশ করে এবং অনাস্থা জানিয়ে ঘনিষ্ঠ মহলে সুদীপবাবু জানিয়েছেন, ২০২৩ সালের বিধানসভা ভোটে বিজেপির টিকিটে আর লড়বেন না। তবে শুধু তিনি নন, সুদীপ ঘনিষ্ঠ আরেক বিক্ষুব্ধ বিধায়ক আশিস সাহাও তাঁর সঙ্গেই ছাড়তে পারেন বিজেপি।

আরও পড়ুন- যোগীর মন্ত্রিসভায় ফের ভাঙন, দল ছাড়লেন উত্তরপ্রদেশের খাদ্য প্রতিমন্ত্রী ধরম সিং সাইনি

বিপ্লব ও সুদীপ গোষ্ঠীর দ্বন্দ আরও বেড়ে গিয়েছে স্বামীজির জন্ম জয়ন্তীতে একটি রক্তদান শিবিরের অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে। সুদীপ অনুগামীদের আয়োজিত এই রক্তদানের অনুষ্ঠান ভেস্তে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে বিজেপির বিরুদ্ধে। এবং এই ঘটনার পিছনে সরাসরি মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবের হাত আছে বলে অভিযোগ।

বিবেকানন্দ স্মরণে ছাত্রদের উদ্যোগে সাবরুমে আয়োজিত রক্তদান শিবিরে বিক্ষুব্ধ বিজেপি বিধায়ক সুদীপ রায় বর্মন ও আশিস সাহা আমন্ত্রিত হয়ে গিয়েছিলেন। আর তাতেই রেগে আগুন বিপ্লব দেব গোষ্ঠী শিবির। কেন সুদীপ রায় বর্মনকে আমন্ত্রণ করা হয়েছে, সেই ক্ষোভ মেটাতে রক্তদান শিবির শেষে এক ছাত্র উপর হামলা চালায় বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীরা। গুরুতর জখম ও রক্তাক্ত অবস্থায় ওই ছাত্রকে
আগরতলা জিবি হাসপাতালে নিয়ে আসা হয় চিকিৎসার জন্য। এদিন কিছুটা সুষ্ঠ হয়ে ওই ছাত্র জিবি হাসপাতাল থেকে সোজা বিধায়ক সুদীপ রায় বর্মনের সঙ্গে দেখা করতে যান। তাঁর সঙ্গে ছিলেন বিধায়ক আশিস সাহাও।সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে বিধায়ক সুদীপ রায় বর্মন এই ঘটনার তীব্র নিন্দা এবং ধিক্কার জানান। এবং তিনি বলেন, কারা এই ঘটনা ঘটাচ্ছে তাদেরকে চিহ্নিত করা হচ্ছে। নাম না করে বিপ্লব দেবকে হুঁশিয়ারি দিয়ে সুদীপ রায় বর্মন বলেন, ইতিহাস কাউকে ক্ষমা করে না। সব অন্যায়ের জবাব দেওয়া হবে। যারা স্বামী বিবেকানন্দের ছবি সামনে রেখে রাজনীতি করে, তারাই আবার স্বামীজীর জন্ম জয়ন্তীতে ছাত্রদের রক্তদান শিবিরের হামলা করে। এই দ্বিচারিতা ত্রিপুরার মানুষ মেনে নেবে না।

 

Previous articleIpl: ২০২২ আইপিএল আয়োজনের জন‍্য এই দুই দেশকে বিকল্প ভাবছে বিসিসিআই : সূত্র