India vs Sri Lanka: শ্রেয়স-বুমরাদের দাপটে টেস্টের দ্বিতীয় দিনেই জয়ের গন্ধ পাচ্ছে টিম ইন্ডিয়া

ভারত ২৫২ ও ৩০৩-৯ ডিঃ,
শ্রীলঙ্কা ১০৯ ও ২৮-১ (দ্বিতীয় দিন)
৪১৯ রানে পিছিয়ে শ্রীলঙ্কা

কখনও শ্রেয়স, কখনও বুমরা। রবিবাসরীয় বিকেলে যেমন ঋষভ পন্থ। এঁরাই বিরাট-মঞ্চে নায়ক হয়ে যাচ্ছেন। এদিন ২৮ বলে পঞ্চাশ ঋষভের। ভারতীয়দের মধ্যে দ্রুততম টেস্ট হাফ সেঞ্চুরি। পিছনে চলে গেলেন কপিলদেব। পিছনে পড়ে থাকলেন শার্দূল ঠাকুর। তবে রাতের দিকে ফের শ্রেয়স-শো। কিন্তু গার্ডেন সিটির মন তাতে ভরল না! আসলে কোন এক হ্যামলিনের বাঁশিওয়ালার টানে কোভিড উড়িয়ে মাঠ ভরিয়েছিলেন বেঙ্গালুরুবাসী। দিনের শেষে বিরাট-প্রাপ্তি ২৩ ও ১৩!

বেঙ্গালুরুতেই তাঁর একশো টেস্ট খেলার কথা ছিল। সূচির হেরফেরে খেলতে হল মোহালিতে। উত্তর-দক্ষিণ যাত্রাপথ যতই বদলাক, বিরাটের ভাগ্য অপরিবর্তিতই থাকল! দ্বিতীয় দিনের শেষে ভারত ৪১৮ রানে এগিয়ে। অর্থাৎ চালকের আসনে রোহিতরা। প্রথমবার পূর্ণ সিরিজে নেতৃত্ব দিতে গিয়ে টেস্ট ও সিরিজ দুটোই রোহিতের হাতে আসছে। শুধু সময়ের অপেক্ষা। কিন্তু কোথায় যেন বিরাট-কাঁটাও খচখচ করছে।

শ্রীলঙ্কা প্রথম ইনিংস শেষ করেছিল ১০৯ রানে। জসপ্রীত বুমরার ২৪ রানে পাঁচ উইকেট। দুটি করে উইকেট অশ্বিন ও শামির। একটি উইকেট অক্ষরের। অস্ট্রেলিয়ায় ১-৪-এ টি-২০ সিরিজ হেরে ভারতে এসেছিল শ্রীলঙ্কা। দেখা গেল উপমহাদেশের উইকেটেও তাদের হাল ফিরল না। অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজের ৪৩ ছাড়া আর মাত্র দু’জন ব্যাটার দুই অঙ্কে যেতে পেরেছেন। একজন ধনঞ্জয় ডি সিলভা (১০), অন্যজন ডিকোয়েলা (২১)। শ্রীলঙ্কাকে ডোবাচ্ছে তাদের ব্যাটিং। বিশেষ করে টপ অর্ডার।

মায়াঙ্ক (২২) আরও একবার ব্যর্থ হলেন। রোহিত ৪ রানের জন্য হাফ সেঞ্চুরি মিস করলেন। হনুমা ফের সেট হয়ে উইকেট দিয়ে গেলেন। বিরাট ১৬ বলে ১৩ রানের ইনিংস খেলে গেলেন। নির্যাসে এই হল দ্বিতীয় ইনিংসে চিন্নাস্বামীতে ভারতীয় টপ অর্ডারের ছবি। শুধু পার্থক্য গড়ে দিলেন ঋষভ। প্রথম ইনিংসে যেভাবে মার মার করে শুরু করেছিলেন, এদিন তাকেও ছাপিয়ে গেলেন। ৩১ বলে ৫০। সাতটি চার, দুটি ছক্কা। কিন্তু শ্রীলঙ্কার বোলিং যখন মারের মুখে কোণঠাসা হয়ে পড়েছে, তখনই উইকেট দিয়ে এলেন ঋষভ।

এরপরও যে ভারত ৯ উইকেটে ৩০৩ রান তুলে ইনিংস ডিক্লেয়ার করতে পারল, সেটা শ্রেয়স আইয়ারের জন্য। প্রথম ইনিংসে ৯২-এর পর দ্বিতীয় ইনিংসে তিনি করলেন ৬৭ রান। এতে শ্রীলঙ্কাকে ৪৪৬ রানের টার্গেট দিতে পেরেছে ভারত। দিনের শেষে বুমরার বলে থিরিমানের উইকেট তারা হারিয়ে ২৮ রান তুলেছে। আরও ৪১৯ রান দরকার। হাতে ৯ উইকেট। তবে জয় নয়, এখন শ্রীলঙ্কার ম্যাচ বাঁচানোর লড়াই।

আরও পড়ুন- Sachin-Sreesanth: শ্রীশান্তকে আবেগঘন বার্তা দিলেন শচীন

Previous articleদুষ্কৃতীদের গুলিতে মৃত্যু তৃণমূল কাউন্সিলরের, খুন হলেন ঝালদার সদ্যজয়ী কংগ্রেস প্রার্থীও