Viral: বছর ২৫ এর যুবতীর বিয়ের প্রস্তাবে সাড়া দিলেন আম্বানি 

টাকা বাড়বে কিন্তু বয়স বাড়লে সৌন্দর্য্য কমে যাবে স্পষ্ট জানালেন মুকেশ আম্বানি।

নেট দুনিয়ায় এখন সব কিছুই সম্ভব, নিজের ইচ্ছের কথাটুকু একবার মন খুলে বলতে পারলেই হল। কমেন্টের বন্যা শুরু হয় নিমেষেই আবার মুহূর্তে আসা যায় শিরোনামে , হওয়া যায় ভাইরাল(Viral)। তবে এর মধ্যে ঠিক কোনটি চেয়েছিলেন ২৫ বছর বয়সী পূজা চৌহান (Pooja Chauhan)? আর কীভাবেই বা তাঁর সাথে জড়ালো ধনকুবের মুকেশ আম্বানির (Mukesh Ambani) নাম?

 

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের ইচ্ছার কথা প্রকাশ করে ‘ পাত্র চাই’ নামক শীর্ষে  বিজ্ঞাপন দেন পূজা। সটান জবাব দেন মুকেশ আম্বানি(Mukesh Ambani)। দুজনের সেই পোস্ট ঘিরেই এখন জোর চর্চা নেটদুনিয়ায়। কিছুদিন আগেই পূজা চৌহান তাঁর নিজেস্ব সোশ্যাল হ্যান্ডেলে ‘কোটিপতি পাত্র চাই’ বলে একটি বিজ্ঞাপন পোস্ট করেন। যেখানে লেখা,  “আমি এই বছরই ২৫ বছরে পা দেব।আমি খুবই সুন্দরী, স্টাইলিশ এবং রুচিশীল। আমি এমন একজন স্বামী চাই, যাঁর বার্ষিক বেতন হবে ১০০ কোটি বা তার বেশি হবে। আপনারা হয়তো বলবেন, আমি একটু বেশিই উচ্চাকাঙ্ক্ষী। কিন্তু বর্তমানে বার্ষিক ২ কোটি টাকা বেতনে একেবারেই মধ্যবিত্তের মতো জীবনযাপন করতে হয় আমাকে। সেদিক থেকে আমার চাহিদা একেবারেই বেশি নয়। এই ফোরামে বার্ষিক ১০০ কোটি টাকা বেতনের সবাই কি বিবাহিত?” ব্যাস এইটুকু পড়েই আপনি নিশ্চয়ই কিছুটা আন্দাজ করে ফেলেছেন । এবার তাহলে জেনে নিন বাকি কাহিনী।

১২ এপ্রিল বালিগঞ্জ ও আসানসোল কেন্দ্রে উপনির্বাচন, ঘোষণা নির্বাচন কমিশনের

পূজার এমন পোস্টের জবাবে উত্তর দেন বিশ্বের অন্যতম ধনী ব্যক্তি তথা রিলায়েন্সের কর্ণধার মুকেশ আম্বানি। তিনি একজন পেশাদার লগ্নিকারী হিসেবে পূজার কথার বিশ্লেষণ করেন সেই সোশ্যাল মিডিয়াতেই। তিনি ২৫ বছরের যুবতীকে লেখেন যে তাঁর  চাহিদা মতো মুকেশ বাবুর বার্ষিক আয় ১০০ কোটি টাকার বেশি।  মুকেশ আম্বানি লেখেন, ” একজন ব্যবসায়ী হিসেবে, আমার পক্ষে আপনাকে বিয়ে করা খুবই খারাপ সিদ্ধান্ত হবে। দেখুন, আপনি চাইছেন, সৌন্দর্য ও টাকার বিনিময়। অর্থাৎ আপনাকে বিয়ে করলে একজন সুন্দরী স্ত্রী পাওয়া যাবে। তার বদলে আপনি হবেন ধনী। কিন্তু সমস্যা হল, আপনার এই যৌবন ও সৌন্দর্য একসময় শেষ হয়ে যাবে। কিন্তু আমার টাকা শেষ হবে না। বস্তুত, প্রতি বছর আমার আয় বাড়বে। কিন্তু প্রতি বছরই আপনি আরও সুন্দরী হয়ে উঠবেন না। অতএব অর্থশাস্ত্রের নিরিখে, আমি একজন অ্যাপ্রিসিয়েশন অ্যাসেট। আর আপনি ডেপ্রিসিয়েশন অ্যাসেট। অর্থাৎ আপনার যৌবন ও রূপই যদি আপনার সম্পত্তি হয়ে থাকে, তাহলে ১০ বছর পর আপনার সম্পত্তি অনেকটাই কমে যাবে।”

এরপরই জোর জল্পনা শুরু। অনেকেই বলছেন একেবারে পাকা ব্যবসাদার হিসেবেই ব্যক্তিত্বের সঙ্গে মানানসই বক্তব্য রেখেছেন মুকেশ আম্বানি। পাশাপাশি  পূজার এমন নিম্নচিন্তাধারার প্রতি আম্বানির এমন স্পষ্ট জবাব নজর কেড়েছে নেটিজেনদের। নেট দুনিয়ায় তাই ভূয়সী প্রশংসা মুকেশ আম্বানির।

 

Previous articleIndia Team: শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে প্রথম দিনে এগিয়ে ভারত, দিনের শেষে ৬ উইকেট হারিয়ে লঙ্কানদের রান সংখ‍্যা ৮৬