আমি প্রধানমন্ত্রী হতে পারি, রাষ্ট্রপতি কখনই না: হঠাৎ কেন এমন বললেন মায়াবতী

সমাজবাদী পার্টির(SP) তরফে বলা হচ্ছে মায়াবতী(Mayabati) নাকি দেশের রাষ্ট্রপতি(Precident) হতে চান। তবে এই দাবীকে পুরোপুরি গুজব বলে উড়িয়ে পাল্টা জবাব দিলেন উত্তরপ্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা বহুজন সমাজবাদী পার্টির(BSP) প্রধান মায়াবতী। বৃহস্পতিবার সংবাদ মাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি জানালেন, তিনি দেশের প্রধানমন্ত্রী হতে পারেন কিংবা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী। তবে দেশের রাষ্ট্রপতি হওয়ার কোনও ইচ্ছা নেই তাঁর। কারণ তিনি চান দেশবাসীর সেবা করতে।

এদিন সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে মায়াবতী বলেন, “উত্তরপ্রদেশে নিজেদের ক্ষমতা দখলের রাস্তা পরিষ্কার করতে আমাকে রাষ্ট্রপতি বানানোর স্বপ্ন দেখা বন্ধ করুক সপা। কারণ আমি রাষ্ট্রপতি হওয়ার স্বপ্ন দেখি না। আমার জীবন আরামের নয় সংগ্রামের। আমি উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার স্বপ্ন দেখি, ভবিস্যতে দেশের প্রধানমন্ত্রীও হতে চাই। কিন্তু রাষ্ট্রপতি হতে চাই না কখনও।” পাশাপাশি সপাকে তোপ দেগে তিনি আরও বলেন, ‘উত্তরপ্রদেশে বিজেপির ক্ষমতা দখলের পিছনে দায়ী সমাজবাদি পার্টি। এই দলই রাজ্যের মুসলিম ও দলিতদের উপর হওয়া নৃশংসতার জন্য দায়ী।’

আরও পড়ুন:এবার চুম্বন বিতর্কে চন্দনা, প্রেমিকের সঙ্গে ছবি ভাইরাল স্যোশাল মিডিয়ায়

উল্লেখ্য, গত বুধবার মায়াবতীর বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ তুলেছিলেন সমাজবাদী পার্টির প্রধান অখিলেশ যাদব। এক অনুষ্ঠানে দাঁড়িয়ে বসপা প্রধানকে তোপ দেগে তিনি বলেন, গত বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপিকে ভোটে সুবিধা করে দিয়েছিলেন মায়াবতী। সেইসঙ্গে তিনি বলেন, বিজেপি মায়াবতীকে দেশের রাষ্ট্রপতি করে কিনা সেটাই এখন দেখার। ওই দলিত নেত্রীকে দেশের সর্বোচ্চ সাংবিধানিক পদ দেওয়ার শর্তেই নির্বাচনের সময় বহুজন সমাজবাদী পার্টির সঙ্গে ‘চুক্তি’ হয়েছিল গেরুয়া শিবিরের। অখিলেশের এহেন অভিযোগের পর বৃহস্পতিবার সাংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে পাল্টা তোপ দাগলেন মায়াবতী।




Previous articleরাজ্যে প্রসূতি মৃত্যুর হার কমাতে স্বাস্থ্যদফতরের বিশেষ নজরদারি দল