গরমের ছুটি নিয়ে বাংলার ভাগের দাবি তোলা BJP বিধায়ক শঙ্করকে এবার কটাক্ষ তৃণমূলের

আগামী ২ মে থেকে রাজ্যজুড়ে গরমের ছুটি ঘোষণা করেছে রাজ্য সরকার। তবে সরকারের এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতায় সরব হয়ে পৃথক রাজ্যের উস্কানিতে ইন্ধন জুগিয়েছেন বিজেপি(BJP) বিধায়ক শঙ্কর ঘোষ(Shankar Ghosh)। তাঁর সেই মন্তব্যের পাল্টা দিয়ে শুক্রবার টুইট করলেন তৃণমূল(TMC) নেতা কৃশানু মিত্র(Krishanu Mitra)। রীতিমতো কটাক্ষ করে টুইটারে তিনি জানালেন, “গরমে বিদ্যুৎ ঘাটতি কমাতে বাতিল করা হচ্ছে বেশ কয়েকটি ট্রেন। এই বঞ্চনা ও ব্যর্থতার জন্য পশ্চিমবাংলা এবং বাকি দেশের মানুষকে কী কী পৃথক চাইতে হবে শঙ্কর বাবু?”

 

ঠিক কী বলেছিলেন বিজেপি বিধায়ক শঙ্কর ঘোষ?
শিলিগুড়ি সাব-ডিভিশনকে আগাম গরমের ছুটির আওতা থেকে বাদ রাখার অনুরোধ করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠি লেখেন শঙ্কর। সেই চিঠির পাশাপাশি টুইটারে তিনি লেখেন, দক্ষিণবঙ্গে খুব গরম পড়ছে, কিন্তু, উত্তরের আবহাওয়া সম্পূর্ণ আলাদা। বিধায়কের কথায়, উত্তরবঙ্গের আবহাওয়া স্কুল খুলে রাখার পক্ষে অত্যন্ত অনুকূল। এখনই স্কুল বন্ধ করার মতো কিছু হয়নি। ২ তারিখ থেকে স্কুল বন্ধ করে দেওয়া হলে, পড়ুয়াদের শিক্ষার মৌলিক অধিকার থেকে বঞ্চিত করা হবে বলেও জানান শঙ্কর ঘোষ। এর পরই তাঁর সংযোজন, এ ভাবে দক্ষিণ আর উত্তরকে এক করে দেওয়া হয় বলেই পৃথক রাজ্যের দাবি ওঠে। শঙ্করের এহেন মন্তব্যের পর স্বাভাবিকভাবেই শুরু হয় বিতর্ক। তৃণমূলের তরফে তাঁর মন্তব্যের তীব্র নিন্দা করে কুণাল ঘোষ জানান, “রাজ্য সরকার সামগ্রিক পরিস্থিতির কথা চিন্তা করে একটা সিদ্ধান্ত নিয়েছে। সেটা নিয়ে পৃথক রাজ্যের দাবি তুলে, রাজনীতি করছে বিজেপি।” কুণাল ঘোষের পর এবার শঙ্কর ঘোষকে কটাক্ষ করে টুইট করলেন কৃশানু মিত্র।




Previous articleপ্রয়াত চিত্রপরিচালক প্রভাত রায়ের স্ত্রী জয়শ্রী রায়