নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করতে ‘জঙ্গি’ নইমকে ১৭ তারিখ পর্যন্ত সময় দিল হাইকোর্ট

প্রাণ ভিক্ষার আবেদন জানিয়ে কলকাতা হাইকোর্টের আবেদন করল লস্কর-ই-তৈবার সদস্য নইম। মানববোমা তৈরি ও এখানে জঙ্গি তৈরি করার লক্ষ্য নিয়ে বেনাপোল সীমান্ত দিয়ে ভারতে ঢুকেছিল বলে অভিযোগ। নাশকতামূলক কাজে জড়িত সন্দেহে তাকে গ্রেফতার করা হয়। নাম জড়ায় মুম্বই হামলার ঘটনাতেও। বনগাঁ (Bongaon) আদালত নইমকে ফাঁসির (Execution) নির্দেশ দেয়।

এই রায়ের বিরোধিতায় কলকাতা হাইকোর্টের (Calcutta High Court) দ্বারস্থ হয় নইম। নিজেকে নিরাপরাধ বলে দাবি করে সে। মঙ্গলবার, ঈদের দিন শুনানিতে বিচারপতি তাকে নির্দোষ প্রমাণের জন্য ১৭ মে পর্যন্ত সময় দিলেন। পাশাপাশি, নইমের জন্য আইনজীবী নিয়োগে রাজ্য লিগাল এইডকে নির্দেশ দিয়েছেন বিচারপতি।

 

 

লস্কর-ই-তৈবার (Lashkar-e-Taiba) সদস্য সন্দেহে ২০১৭ সালে নইমকে গ্রেফতার করে পুলিশ। দীর্ঘ শুনানির পরে বনগাঁ আদালত নইমের মৃত্যুদণ্ডে আদেশ দেয়। তবে, হাই কোর্ট অনুমোদন না দিলে ফাঁসি কার্যকর হয় না। সেই জন্যই কলকাতা হাইকোর্টে আবেদন করা হয়। এদিন, শুনানিতে নইম জানায়, এটা তার জীবন-মরণের প্রশ্ন। তার বিরুদ্ধে আনা সমস্ত অভিযোগ ভুল। সে বাঁচতে চায়। মামলার পরবর্তী শুনানি ১৭ মে।

আরও পড়ুন- ছেলে ঈশানের সঙ্গে প্রথম ঈদ, আজ শুধুই কবজি ডুবিয়ে খাওয়া নুসরতের

 

Previous articleবহরমপুরের বীভৎসতা! গ্রেফতার সুশান্ত, মেস ছাড়ছেন ছাত্রীরা