হুড়মুড়িয়ে নামছে ডলারের তুলনায় টাকার দাম, বিরাট ধাক্কা শেয়ারবাজারে

লাগাতার ফের ডলারের(dollar) তুলনায় পতন ঘটল টাকার দামে। একটু-আধটু নয় একেবারে রেকর্ড পতন। বৃহস্পতিবার ডলারের তুলনায় ৩০ পয়সা কমে গেল টাকা দাম। যার প্রভাব ব্যাপকভাবে দেখা গেল দেশের শেয়ারবাজারে(share market)। বৃহস্পতিবার হাজারের বেশি পয়েন্ট পড়ল সেনসেক্স(sensex)। ৩০০-র বেশি পয়েন্ট নেমেছে নিফটিও(Nifty)। সব মিলিয়ে দেশের অর্থনীতিতে এক বিরাট ধাক্কা বলে মনে করছে বিশেষজ্ঞ মহল।

বুধবার বাজার বন্ধ হওয়ার সময় ডলারের তুলনায় টাকার দর ছিল ৭৭ টাকা ২৪ পয়সা। বৃহস্পতিবার লেনদেন শুরু হওয়ার সময় তা আরও কমে দাঁড়ায় ৭৭ টাকা ৪১ পয়সা। তারপরও টাকার দরে ধস অব্যাহত। এদিন সর্বনিম্ন ৭৭ টাকা ৫৯ পয়সা পর্যন্ত নেমে যায় টাকার দর। যা এখনও পর্যন্ত টাকার দরে সর্বকালের রেকর্ড পতন। এই নিয়ে শুধু চলতি সপ্তাহেই ০.৮ শতাংশ কমে গিয়েছে টাকার দর।

টাকার দামের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে নামতে থাকে দেশের শেয়ারবাজার। এই বাজার খোলার সঙ্গে সঙ্গেই ৯০০ পয়েন্টের বেশি পড়ে যায় সেনসেক্স। পাল্লা দিয়ে নামে নিফটিও। শেষ রিপোর্ট অনুযায়ী, বিএসই সেনসেক্স (BSE Sensex) -১১৫৮.০৮ পয়েন্ট বা -২.১৪ শতাংশ নেমে দাঁড়িয়েছে ৫৩,৯৩০.৩১। এনএসই নিফটি (NSE Nifty) -৩৫৯.১০ পয়েন্ট বা -২.২২ শতাংশ নেমে হয়েছে ১৫,৮০৮.০০। শেয়ারবাজারের এই বিপুল ধাক্কায় গত ৪ দিনে প্রায় ১৩ লক্ষ কোটি টাকা খোয়ালেন বিনিয়োগকারীরা।

আরও পড়ুন:DYFI: রাত পোহালেই ডিওয়াইএফআই-এর একাদশতম সর্বভারতীয় সম্মেলন

বাজার বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, আন্তর্জাতিক বাজারে অপরিশোধিত তেলের দাম বেড়েছে। তেল আমদানি করার জন্য ডলারের চাহিদা বাড়ছে। বিদেশের বাজারে অপরিশোধিত তেলের দাম অস্থির হওয়ার জন্যই ভারতীয় টাকার মূল্যের ওপর এতটা প্রভাব পড়ছে। পাশাপাশি, গত সপ্তাহে মূল্যবৃদ্ধি রোধ করতে আমেরিকার ফেডেরাল রিজার্ভ তাদের সুদের হার বাড়িয়েছে। ফলে বিদেশি বিনিয়োগকারীরা উদ্বৃত্ত অর্থ ভারতীয় বাজারে বিনিয়োগ করতে পারছেন না। উলটে যুদ্ধকালীন পরিস্থিতিতে শেয়ার বিক্রি করে দিচ্ছেন তাঁরা। যার ফলে ধস নামছে শেয়ার বাজারেও।




Previous articleদেউচা পাচামি প্রকল্প রুখতে টাকার খেলা! ভাইরাল অডিও কথোপকথন ঘিরে চাঞ্চল্য