কুণাল ঘোষের বিরুদ্ধে ত্রিপুরার একটি আদালতে চার্জশিট পেশ করল ত্রিপুরা পুলিশ।

অমরাবতী জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেঐট আদালত কুণালের নামে সমন ইস্যু করেছেন।

সীতার পাতালপ্রবেশের কথা তুলে সীতার মানসিক যন্ত্রণার কথা বলেছিলেন কুণাল। তাঁর বক্তব্য ছিল, জয় সীতারাম বা সিয়ারাম থেকে বিকৃত বা উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে সীতাকে বাদ দিয়ে শ্রীরাম করা হয়েছে। রামরাজ্যে অপমানিত হয়ে সীতাকে প্রথম অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় বনবাসে যেতে হয়। এরপর পাতালপ্রবেশের মধ্যে দিয়ে কার্যত আত্মহনন করেন তিনি।

ত্রিপুরা পুলিশ ধর্মে আঘাত করার অভিযোগে একাধিক মামলা করে। কুণাল শরীরের গিয়ে প্রতিটি থানায় জেরার মুখোমুখি হন। সঙ্গে নিয়ে গেছিলেন রামায়ণের বিভিন্ন সংস্করণ ও গবেষণাগ্রন্থ। তিনি বলেন, তিনি নিজে হিন্দু। কোনো ধর্মকে আঘাতের কোনো উদ্দেশ্যই তাঁর ছিল না। যারা রামের নাম নিয়ে রাজনীতি করছে, তাদের জন্য সীতার পরিণতির প্রশ্নটাই তুলে ধরেছিলেন তিনি।

2021 সালের 12 নভেম্বর ত্রিপুরার বাগমা ফাঁড়িতে পুলিশের মুখোমুখি হয়েছিলেন কুণাল।  ছ মাস পর এই সংক্রান্ত মামলাতেই এখন চার্জশিট দিয়েছে ত্রিপুরা পুলিশ। আদালত কুণালকে 30মে সকালে এজলাসে উপস্থিত থাকার জন্য সমন পাঠিয়েছে।

Previous articleদিল্লিতে অগ্নিকাণ্ড: শোকপ্রকাশ রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী এবং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের