পার্কসার্কাস গুলিকাণ্ডে চাঞ্চল্যকর তথ্য: মানসিক সমস্যা ছিল চোড়ুপ লেপচার!

পার্কসার্কাস (Park Circus) গুলিকাণ্ডে চাঞ্চল্যকর তথ্য। সূত্রের খবর, মানসিক রোগে ভুগছিলেন চোড়ুপ লেপচা (Chrup Lepcha)! মানসিক রোগের কারণে তাঁকে সরকারি হাসপাতালেও ভর্তি করা হয়েছিল বলে খবর। তারপরেও কেন তাঁকে ডিউটিতে রেখে হাতে আগ্নেয়াস্ত্র দেওয়া হল- তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে।

বছরখানেক আগে চাকরি পান চোড়ুপ লেপচা নামে যুবক। প্রথমে এসটিএফে (STF) যোগ দেন তিনি। মুর্শিদাবাদে অভিযান চালানোর সময় গাড়ি থেকে মাঝপথেই নেমে পড়েছিলেন তিনি। সহকর্মীরা তাঁকে এনকাউন্টারে মেরে ফেলতে পারে বলে আতঙ্কে ভুগছিলেন বলে সূত্রের খবর। মানসিক সমস্যা বুঝতে পেরে, চোড়ুপকে নিয়ে অভিযানের মাঝেই দু’জন পুলিশকর্মী কলকাতা ফিরে আসেন। সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করে হয় চিকিৎসাও।

চোড়ুপ মাদকাসক্তও ছিলেন বলেও পুলিশ (Police) সূত্রে খবর। তাঁর সহকর্মীদের অভিযোগ, মানসিক চিকিৎসার পরেও নানারকম অস্বাভাবিক আচরণ করতেন চোড়ুপ। সিপি বিনীত গোয়েল অবশ্য মানসিক অবসাদে ভোগার সম্ভাবনার কথাই শুক্রবার জানিয়ে ছিলেন।

পার্কসার্কাসে এলোপাথাড়ি গুলি চালিয়ে আত্মঘাতী হন চোড়ুপ লেপচা। তাঁর ছোড়া গুলিতে মৃত্যু হয় রিমা সিংহ নামে এক তরুণীর। আহত হন বেশ কয়েকজন। সেই তদন্তে নেমে ঘটনার দিনে এলাকার বেশ কয়েকটি সিসি ক্যামেরা ফুটেজ খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ঘটনার কিছুক্ষণ আগে একটি বাড়ির সিঁড়ি দিয়ে উঠেছিলেন চোড়ুপ। নীচে নেমেই এই ভয়াবহ কাণ্ড ঘটান। কেন গিয়েছিলেন তিনি? সেই বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। চলন্ত বাইকে থাকা অবস্থায় রিমার গলায় কীভাবে গুলি লাগল- সেবিষয়েও তদন্ত চলছে।

আরও পড়ুন- পয়গম্বর বিতর্কে উত্তাল দেশ: উত্তরপ্রদেশে গ্রেফতার ২২৭, রাঁচিতে মৃত ২

 

 

Previous articleপয়গম্বর বিতর্কে উত্তাল দেশ: উত্তরপ্রদেশে গ্রেফতার ২২৭, রাঁচিতে মৃত ২