সৌমিত্রর মুখে রোদ্দুর রায়ের ভাষা! বিজেপি সাংসদকে কড়া জবাব তৃণমূলের

এমন কুরুচিকর ভাষার জন্য সৌমিত্র খাঁ-কে নিয়ে রাজ্যজুড়ে সমালোচনার ঝড় বইছে। একজন সাংসদ ও জনপ্রতিনিধি হয়ে আরেকজন সাংসদকে এমন ভাষায় আক্রমণ কখনোই বাংলার সংস্কৃতি হতে পারে না। সৌমিত্র খাঁকে কড়া ভাষায় জবাব দিতে দেরি করেনি ঘাসফুল শিবিরের নেতা-নেত্রীরা

ফের কুরুচিকর মন্তব্য করলেন বিষ্ণুপুরের বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ। যা শুনে নেটিজেনরা বলছেন, সৌমিত্র খাঁয়ের মুখে “অসভ্য” ইউটিউবার রোদ্দুর রায়ের ভাষা। যা শুনে লজ্জা পাবে রাস্তার বকাটে ছেলেরাও।

বিষ্ণুপুরের বাহাদুরগঞ্জের নাম না করে তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক তথা সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় সম্পর্কে আপত্তিকর মন্তব্য করে বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ বলেন, ‘‘কোনও দিনও ভাববেন না সৌমিত্র খাঁ অন্য কোনও দলে যাবে। প্রয়োজনে মৃত্যুবরণ করতেও রাজি আছি কিন্তু তৃণমূল কংগ্রেসের ভাইপোর কাছে কোনও দিন মাথা নত করব না। হরিদাস ভাইপোকে জুতো মারতে রাজি আছি, কিন্তু তার অধীনে রাজনীতি করতে নয়।’’

এমন কুরুচিকর ভাষার জন্য সৌমিত্র খাঁ-কে নিয়ে রাজ্যজুড়ে সমালোচনার ঝড় বইছে। একজন সাংসদ ও জনপ্রতিনিধি হয়ে আরেকজন সাংসদকে এমন ভাষায় আক্রমণ কখনোই বাংলার সংস্কৃতি হতে পারে না। সৌমিত্র খাঁকে কড়া ভাষায় জবাব দিতে দেরি করেনি ঘাসফুল শিবিরের নেতা-নেত্রীরা।

তৃণমূলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষ বলেন, “সৌমিত্র খাঁ’র এমন আপত্তিকর ভাষার কড়া নিন্দা করছি। এই ভাষা কি বিজেপি সমর্থন করে? বাংলা হরফে একাধিক অক্ষর আছে৷ গেটে কাউকে অনেক সময় বেঁধে রাখতে হয়। গৃহকর্তার দায়িত্ব ঘেউ ঘেউ থামানো।”

তৃণমূলের রাজ্য সহ-সভাপতি জয়প্রকাশ মজুমদার বলেন, “সমাজে অনেক কীট থাকে, সৌমিত্র খাঁ তাদের মতোই। সৌমিত্রর মতো নেতাদের বয়কট করে অভিষেকের আদর্শে এগিয়ে যাওয়া উচিত যুবসমাজের।”

সৌমিত্রর মন্তব্যের তীব্র নিন্দা করে সুজাতা মণ্ডল বলেন, “চরম হতাশায় ভুগছে। একটি নোংরা লোক। এই সমস্ত প্রাণীদের পাগলা গারদে দেওয়া উচিত।”

সৌমিত্রর মন্তব্য নিয়ে তৃণমূলের বিষ্ণুপুর সাংগঠনিক জেলা সভাপতি অলোক মুখোপাধ্যায়ের পাল্টা তোপ, ‘‘অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে তিনি রাজনীতি শিখে সাংসদ হয়েছেন এবং নাম কুড়িয়েছেন। আজ তৃণমূলে ঢোকার জন্য তিনি অস্থির হয়ে পড়েছেন। মিডিয়ায় ভেষে থাকতে উল্টোপাল্টা বকছেন। ওনার তৃণমূলে আসার স্বপ্নপূরণ হবে না।”

 

Previous articleরাহুলের ইডি-হাজিরায় কংগ্রেসের বিক্ষোভ নিয়ে অধীরকে ধুয়ে দিলেন কুণাল