বিশেষভাবে সক্ষম পড়ুয়াদের জন্য পৃথক কলেজ গড়বে রাজ্য

বিশেষভাবে সক্ষম পড়ুয়াদের জন্য রাজ্যে ৭৪ টি স্কুল রয়েছে। কিন্তু উচ্চ মাধ্যমিক পাস করার পরে উচ্চশিক্ষা নিতে চাইলে সমস্যায় পড়েন এধরণের ছাত্র-ছাত্রীরা। মুখ্যমন্ত্রীর কাছে তাঁদের জন্য আলাদা কলেজ করার আবেদন জানানো হয়েছিল। মুখ্যমন্ত্রী সে ব্যপারে অনুমোদন দিয়েছেন।

রাজ্য সরকার বিশেষভাবে সক্ষম পড়ুয়াদের জন্য একটি পৃথক কলেজ গড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।জনশিক্ষা প্রসার ও গ্রন্থাগার মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী বৃহস্পতিবার বিধানসভায় একথা জানিয়েছেন। অশোক নগরের বানীপুরে এই কলেজ তৈরি করা হবে।তিনি জানিয়েছেন, বিশেষভাবে সক্ষম পড়ুয়াদের জন্য রাজ্যে ৭৪ টি স্কুল রয়েছে। কিন্তু উচ্চ মাধ্যমিক পাস করার পরে উচ্চশিক্ষা নিতে চাইলে সমস্যায় পড়েন এধরণের ছাত্র-ছাত্রীরা। মুখ্যমন্ত্রীর কাছে তাঁদের জন্য আলাদা কলেজ করার আবেদন জানানো হয়েছিল। মুখ্যমন্ত্রী সে ব্যপারে অনুমোদন দিয়েছেন।

অন্যদিকে ‘নিজের বই নিজে পড়ো’ প্রকল্পের যথেষ্ট সাড়া মিলেছে। যাদের বাড়িতে পড়ার পরিবেশ নেই তারা সরকারি লাইব্রেরিতে গিয়ে পড়তে পারেন। উল্টোডাঙ্গা কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারে ইতিমধ্যে এই ব্যাবস্থা আছে। আরও ১৩ টি সরকারি গ্রন্থাগারে এই প্রকল্প রুপায়নের কাজ চলছে। সময় কাটানো ও বই পড়ার অভ্যাসকে উৎসাহ দিতে ভালো রেস্টুরেন্ট ও হাসপাতালে বই এর রেক এর ব্যাবস্থা করছে দফতর। বিভিন্ন ভাবে তাদের আর্থিক সহায়তা করে সরকার। লাইব্রেরির ৭৩৮ টি পদে নিয়োগের অনুমোদন হয়েছে। এই পদগুলিতে নিয়োগ সম্পূর্ণ হলে গ্রামীণ লাইব্রেরির উন্নয়ন হবে।

আরও পড়ুন- ধাক্কা সামলে ঊর্ধ্বমুখী শেয়ারবাজার, ৪৪৩ পয়েন্ট বাড়ল সেনসেক্স

সরকারি লাইব্রেরি ছাড়াও বেসরকারি লাইব্রেরিতে যদি সমস্ত নিয়ম মানা হয়, তাহলে আসবাব কিনে দেওয়া সহ যাবতীয় সাহায্য করবে রাজ্য সরকার।

Previous articleMaradona: কী কারণে মৃত্যু হল মারাদোনার? চিকিৎসকদের গাফিলতি? তদন্তে আর্জেন্তিনা সরকার