গুজরাটি-রাজস্থানি না থাকলে মুম্বাই বাণিজ্যনগরী হত না, কোশিয়ারীর মন্তব্যে বিতর্ক

গুজরাটি(Gujrat) ও রাজস্থানিরা(Rajsthan) না থাকলে আজ মুম্বাই(Mumbai) দেশের বাণিজ্যনগরী হত না, সম্প্রতি এমনই মন্তব্য করে বিতর্ক তৈরি করলেন মহারাষ্ট্রের রাজ্যপাল ভগত সিং কোশিয়ারি(Bhagat Singh Koshyari)। তাঁর মন্তব্য মারাঠীদের অপমান বলে একযোগে সরব হয়েছে উদ্ধবপন্থী শিবসেনা ও কংগ্রেস। রীতিমত কড়া সুরে শিবসেনার তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, এই মন্তব্যের জন্য রাজ্যপালকে লিখিতভাবে ক্ষমা চাইতে হবে।

শনিবার পশ্চিম মুম্বইয়ের আন্ধেরিতে একটি এলাকার নামকরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে ভগত সিং কোশিয়ারি বলেন, “মহারাষ্ট্র থেকে যদি গুজরাটি এবং রাজস্থানিদের বের করে দেওয়া হয়, তাহলে মহারাষ্ট্রে (Maharastra) কোনও টাকা অবশিষ্ট থাকবে না। মুম্বইও ভারতের বাণিজ্যনগরী থাকবে না।” রাজভবনের তরফে যে প্রেস বিবৃতি জারি করা হয় সেখানেও গুজরাটি ও রাজস্থানিদের ভূয়সী প্রশংসা করেন রাজ্যপাল। একইসঙ্গে রাজ্যপাল বলেন, রাজস্থানি-মাড়ওয়ারি এবং গুজরাটিরা দেশের যে প্রান্তেই যাক, সেখানে শুধু ব্যবসাই করে না, সেই সঙ্গে সমাজসেবাও করে। স্বাভাবিকভাবেই রাজ্যপালের এহেন মন্তব্যের পর ব্যাপক বিতর্ক তৈরি হয়।

এই ঘটনায় রীতিমত সরব হয় উদ্ধবপন্থী শিব সেনা এবং কংগ্রেস। শিবসেনার তরফে জানানো হয়, রাজ্যপাল মারাঠীদের অপমান করেছেন। মারাঠা অস্মিতায় আঘাত করেছেন। টুইট করে তোপ দেগে সঞ্জয় রাউত বলেন, বিজেপির পোষা একজন মুখ্যমন্ত্রী মসনদে বসতেই ফের মারাঠীদের অপমান করা শুরু হয়ে গেল। কংগ্রেস নেতা জয়রাম রমেশ (Jairam Ramesh) এবং শচীন সাওয়ন্তও একই টুইট করেছেন। তাঁদের বক্তব্য, রাজ্যপালের এই ধরনের কথা বলা উচিত হয়নি। তাঁকে ক্ষমা চাইতে হবে। পাশাপাশি উদ্ধব ঠাকরে রীতিমত তোপ দেগে বলেন, রাজ্যপাল সব সীমা ছাড়িয়ে গিয়েছেন। মারাঠীদের এই অপমান মুখ বুঝে সহ্য করা হবে না।


Previous articleকমনওয়েলথ গেমসে প্রথম পদক, দেশকে রুপো এনে দিলেন সঙ্কেত