৫ বছরে ১০ লক্ষ কোটি টাকার ব্যাঙ্ক জালিয়াতি, ‘সেরা’ জালিয়াত মেহুল

প্রতি বছর লক্ষ লক্ষ কোটি টাকা ঋণ খেলাপি(wilful defaulter) হচ্ছে দেশে। সম্প্রতি সেই রিপোর্টই প্রকাশিত হল রাজ্যসভায়(Rajyashava)। সংসদে দেশের অর্থ প্রতিমন্ত্রী ভগত কে কারাদ জানিয়ে দিলেন গত ৫ বছরে ১০ লক্ষ কোটি টাকা ঋণ খেলাপি হয়েছে দেশে। এবং টাকার অঙ্কে জালিয়াতির শীর্ষে রয়েছে গীতাঞ্জলী জেমস-এর প্রধান পলাতক মেহুল চক্সি(Mehul Choksi)।

অর্থমন্ত্রকের রিপোর্ট অনুযায়ী, ২০২১-২২ অর্থবর্ষে ১.৫৭ লক্ষ কোটি টাকার ঋণ খেলাপি হয়েছে দেশে। ২০২০-২১ অর্থবর্ষে ঋণ খেলাপি হয়েছে ২.০২ লক্ষ কোটি টাকা, ২০১৯-২০ অর্থবর্ষে এই সংখ্যাটা ছিল ২.৩৪ লক্ষ কোটি টাকা, ২০১৮-১৯ অর্থবর্ষে ঋণ খেলাপি ২.৩৬ লক্ষ কোটি এবং ২০১৭-১৮ অর্থবর্ষে দেশে ঋণ খেলাপি হয়েছে ১.৬১ লক্ষ কোটি টাকা। সব মিলিয়ে মোট সংখ্যাটা হল ৯.৯১ লক্ষ কোটি টাকা। একইসঙ্গে শেষ পাঁচ বছরে ঋণ খেলাপি করা ব্যক্তিদের তালিকাও প্রকাশ করা হয়েছে। যেখানে দেখা যাচ্ছে, শেষ ৪ বছরে দেশে ঋণ খেলাপি করেছেন ১০,৩০৬ জন। ২০২১-২২ অর্থবর্ষে দেশে ঋণ খেলাপি করেছেন ২,৮৪০ জন। শুধু তাই নয়, ঋণ খেলাপির টাকার অঙ্কে শীর্ষ ৫ জালিয়াতের নামও প্রকাশ করা হয়েছে। এই তালিকায় প্রথম স্থানে নাম রয়েছে গীতাঞ্জলী জেমসের প্রধান মেহুল চক্সির। জালিয়াতির অঙ্কটা ৭ হাজার ১১০ কোটি টাকা। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে Era Infra Engineering(৫,৮৭৯ কোটি), ৩. Concast Steel and Power(৪,১০৭ কোটি), REI Agro (৩,৯৪৮ কোটি) এবং ABG Shipyard (৩,৭০৮ কোটি)।


Previous article৫ অগাস্ট পর্যন্ত ফের পার্থ-অর্পিতার ইডি হেফাজত