Vegetarian Train: দেশের মধ্যে প্রথম নিরামিষ ট্রেন ! যাত্রাপথে মিলবে সম্পূর্ণ নিরামিষ খাবার

ট্রেনে সফর (Train journey) করতে যাঁরা পছন্দ করেন তাঁদের জন্য সুখবর! আর খাওয়া দাওয়া নিয়ে চিন্তা করতে হবে না। এবার ট্রেনেই মিলবে সম্পূর্ণ নিরামিষ খাবার (vegetarian food)। দুরপাল্লার ট্রেনে কেবলমাত্র নিরামিষ খাবারই মিলবে, এই খবর আগেই জানা গেছিল। কথার কথা নয়, একেবারে সাত্ত্বিক সিলমোহরপ্রাপ্ত বিশুদ্ধ নিরামিষ খাবারই পাওয়া যাবে প্যান্ট্রি কারে। দেশের প্রথম সাত্ত্বিক নিরামিষ ট্রেন হতে চলেছে দিল্লি থেকে কাটরা গামী ‘বন্দে-ভারত এক্সপ্রেস’ (Vande-Bharat Express)!

দিল্লি থেকে কাটরাগামী এই ট্রেনটির শেষ গন্তব্য হল বৈষ্ণোদেবী মন্দির, যা হিন্দুদের অন্যতম তীর্থক্ষেত্র। তাই এই ট্রেনটিকে ‘সাত্ত্বিক’ তকমা দেওয়া হয়েছে এবং এই ট্রেনে IRCTC-র ক্যাটারিং পরিষেবায় কেবল বিশুদ্ধ নিরামিষ খাবার পাওয়া যাবে। এনজিও সাত্ত্বিক কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়ার (Sattvic Council of India) সঙ্গে এই বিষয়ে একটি চুক্তি করেছে আই আর সি টি সি (IRCTC)। সাত্ত্বিক কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়া-র তরফে জানানো হয়েছে, দিল্লি-কাটরা ‘বন্দে-ভারত এক্সপ্রেস’ ছাড়া ইতিমধ্যে আরও ১৮টি ট্রেনকে ‘সাত্ত্বিক’ তকমা দেওয়া হয়েছে। যার মধ্যে সম্প্রতি চালু হওয়া ‘রামায়ণ এক্সপ্রেস’ও রয়েছে। সেই সমস্ত ট্রেনের যাত্রীরা কেবল বিশুদ্ধ নিরামিষ খাবারই পাবেন। এখানেই শেষ নয় দিল্লি-কাটরা বন্দে ভারত এক্সপ্রেসে যাত্রীরা আমিষ খাবার বহন করতে পারবেন না,ট্রেনে কোনও আমিষ খাবার খেতেও পারবেন না। দিল্লি এবং কাটরার মধ্যে চলমান বন্দে ভারত এক্সপ্রেসের যাত্রীদের সম্পূর্ণ নিরামিষ পরিবেশ দেওয়া হবে এবং এই নিরামিষ পরিবেশ কেবল যাত্রীদের পরিবেশন করা খাবারের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য নয়। ট্রেনের ওয়েটাররা আমিষ খাবার ছোঁবেন না এবং রান্নাঘরে খাবার প্রস্তুত করা হয়েছে সেখানে নিরামিষ খাবার ছাড়া অন্য কিছু হবে না। এমন কী পশুজাত খাবারও পরিবেশন করা হবে না। তাই ভেগানদের জন্যও সুখবর বটে! বন্দে ভারত থেকে শুরু করে অন্য সমস্ত ট্রেন যা পবিত্র স্থানগুলির উপর দিয়ে যাবে বা তীর্থস্থানে যাবে তার জন্য এই সাত্ত্বিক নিরামিষ ব্যবস্থাপনা চালু হচ্ছে।

Previous articleহাইকোর্টে মুখ পুড়ল ঝাড়খণ্ডের তিন বিধায়কের, খারিজ সিবিআই তদন্তের আর্জি