কল্যাণী এইমসে নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় বিপাকে বিজেপি বিধায়ক, রক্ষাকবচ দিল না হাইকোর্টে

কল্যাণী এইমসে বেআইনিভাবে নিয়োগ করার অভিযোগ ওঠে বাঁকুড়ার বিজেপি বিধায়ক নীলাদ্রি শেখর দানার বিরুদ্ধে। অভিযোগ, বিজেপি বিধায়ক তাঁর ক্ষমতার অপব্যবহার করে মেয়ে মৈত্রী দানাকে কল্যাণী এইমসে নিয়োগ পাইয়ে দিয়েছেন

এবার বিপাকে বিজেপি বিধায়ক নীলাদ্রি শেখর দানা। কল্যাণী এইমসে নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় তাঁর আর্জি খারিজ করল কলকাতা হাইকোর্ট। রক্ষাকবচ চেয়ে বিজেপি বিধায়ক আবেদন করেছিলের কলকাতা হাইকোর্টে। সেই আবেদনে সাড়া দেয়নি আদালত। আজ, বৃহস্পতিবার আদালত জানিয়েছে, তদন্তের স্বার্থে তাঁকে নোটিশ পাঠালে হাজির হতে হবে সিআইডির কাছে। সেই মর্মে এদিনই সিআইডি’র তরফে নোটিশ যাচ্ছে বলে জানা গিয়েছে।

প্রসঙ্গত, কল্যাণী এইমসে বেআইনিভাবে নিয়োগ করার অভিযোগ ওঠে বাঁকুড়ার বিজেপি বিধায়ক নীলাদ্রি শেখর দানার বিরুদ্ধে। অভিযোগ, বিজেপি বিধায়ক তাঁর ক্ষমতার অপব্যবহার করে মেয়ে মৈত্রী দানাকে কল্যাণী এইমসে নিয়োগ পাইয়ে দিয়েছেন। নিয়োগ সংক্রান্ত এক জনস্বার্থ মামালায় বলা হয়, নিয়োগ পক্রিয়ায় অংশ না নিয়েই ডেটা এন্ট্রি অপারেটর পদে মাসিক ৩০ হাজার টাকা বেতনের চাকরি পেয়েছেন নীলাদ্রি কন্যা। পাশাপাশি রাজ্যের আরও কয়েকজন বিজেপি ঘনিষ্ঠকে চাকরি পাইয়ে দেওয়ার অভিযোগ ওঠে। নিয়ম বহির্ভূতভাবে নিয়োগের অভিযোগে এর আগে নীলাদ্রি শেখর দানার বাড়িতে যান সিআইডি আধিকারিকরা।

কল্যাণীর এইমসে নিয়োগ দুর্নীতির ঘটনায় নীলাদ্রি-সহ বিজেপি দুই সাংসদ, বিধায়ক নিয়ে মোট ৮ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ। নীলাদ্রি শেখর দানার পাশাপাশি কেন্দ্রীয় শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী সুভাষ সরকার, রানাঘাটের সাংসদ জগন্নাথ সরকার এং চাকদার বিধায়ক বঙ্কিম ঘোষদের নাম রয়েছে অভিযুক্তের তালিকায়।

অন্যদিকে, এই দুর্নীতি মামলার তদন্ত সিআইডি নয় সিবিআইকে দিয়ে করানোর আর্জি জানানো হয়েছিল হাইকোর্টে। সেই সিবিআই তদন্তের আবেদনও আগেই খারিজ করে দেয় কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি প্রকাশ শ্রীবাস্তবের ডিভিশন বেঞ্চে। সেখানেই জানানো হয়, এই মামলার তদন্তভার থাকছে সিআইডি’র হাতেই।

 

Previous articleকুড়মি সমাজের বিক্ষোভের জের! কর্মবিরতিতে সামিল SBSTC-র অস্থায়ী কর্মীরা