আপার প্রাইমারি চাকরিপ্রার্থীদের বিক্ষোভ ঘিরে ধর্মতলায় ধুন্ধুমার

বিক্ষোভকারীদের অভিযোগ, ৮ বছর আগে তাঁদের পরীক্ষা নেওয়ার পর দুবার ইন্টারভিউও নেওয়া হয়। কিন্তু এখনও পর্যন্ত কোনও ফলাফল সামনে আসেনি। কবে তাঁরা ফলাফল জানতে পারবেন এই দাবিতেই এদিন বিক্ষোভ শুরু হলে পুলিশ বাধা দেয়। পুলিশ তাঁদের কোনও কারণ ছাড়াই গ্রেফতার করে বলে অভিযোগ। তবে পুলিশ তাদের বিরুদ্ধে ওঠা সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

আপার প্রাইমারি (Upper Primary) চাকরিপ্রার্থীদের (Job Seekers) বিক্ষোভ (Protests) ঘিরে উত্তপ্ত ধর্মতলা (Dharmatala) চত্বর। সোমবার শহরের প্রথম ব্যস্ততম দিনে ওয়াই চ্যানেলে (Y Channel) বিক্ষোভ প্রদর্শনকে কেন্দ্র করেই পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তি শুরু হয়ে যায় চাকরিপ্রার্থীদের। পুলিশ বিক্ষোভকারীদের ওয়াই চ্যানেলে বসতে বাধা দিলে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। নিয়োগের দাবিতে চাকরিপ্রার্থীরা রাস্তায় বসে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে। তবে পুলিশ তাঁদের ওয়াই চ্যানেল থেকে তুলে দিতে গেলেই বাধে বিপত্তি।

বিক্ষোভকারীদের অভিযোগ, ৮ বছর আগে তাঁদের পরীক্ষা নেওয়ার পর দুবার ইন্টারভিউও নেওয়া হয়। কিন্তু এখনও পর্যন্ত কোনও ফলাফল সামনে আসেনি। কবে তাঁরা ফলাফল জানতে পারবেন এই দাবিতেই এদিন বিক্ষোভ শুরু হলে পুলিশ বাধা দেয়। পুলিশ তাঁদের কোনও কারণ ছাড়াই গ্রেফতার (Arrests) করে বলে অভিযোগ। তবে পুলিশ তাদের বিরুদ্ধে ওঠা সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছে। পুলিশ সাফ জানিয়েছে এদিন বারবার ওয়াই চ্যানেলে বসতে বারণ করা হলেও সেকথা কানে তোলেননি বিক্ষোভকারীরা। জোর করে তাঁরা রাস্তায় বসে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে। পরিস্থিতি আয়ত্তে আনতেই তাঁদের একটি বেসরকারি বাসে করে নিয়ে যাওয়া হয়।

গত সপ্তাহে বুধবার ২০১৪ সালের টেট উত্তীর্ণ চাকরি প্রার্থীদের বিক্ষোভ ও পুলিশি ধরপাকড়ের ঘটনায় উত্তপ্ত হয়ে ওঠে এক্সাইড মোড় (Exide More)। টেট উত্তীর্ণ চাকরিপ্রার্থীদের জমায়েত ও বিক্ষোভ ঘিরে ধুন্ধুমার পরিস্থিতি তৈরি হয়। পরে ক্যামাক স্ট্রিটে (Camac Street) দফায় দফায় চলে বিক্ষোভ কর্মসূচি।

Previous article“গেট ওয়েল সুন” কার্ড নিয়ে শান্তিকুঞ্জে হাজির তৃণমূল ছাত্রযুবরা! শুভেন্দুর বাড়ির সামনে ধুন্ধুমারকাণ্ড