দুই সন্তান নীতি: “আইন প্রণয়ন সরকারের কাজ”, আবেদন খারিজ সুপ্রিম কোর্টে

Supreme Court

জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণের(Birth Control) বিষয়টি দেখার কাজ আদালতের নয় সরকারের(Govt)। এই সংক্রান্ত বিষয়ে কোনোভাবেই নাক গলাবে না আদালত। শুক্রবার জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ সংক্রান্ত মামলার শুনানিতে স্পষ্টভাবে এমনটাই জানিয়ে দিল সুপ্রিম কোর্ট(Supreme court)।

জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ আইন লাগু করার দাবিতে সম্প্রতি সুপ্রিম কোর্টে দায়ের হয়েছিল একটি জনস্বার্থ মামলা। শুক্রবার ছিল এই মামলার শুনানি। মামলাকারীদের দাবি ছিল, দেশে জন বিস্ফোরণ ঘটছে। বিশ্বের ২০ শতাংশ মানুষ ভারতীয়, কিন্তু জমি মাত্র ২ শতাংশ। তাই অনিয়ন্ত্রিত জনসংখ্যা বৃদ্ধিতে লাগাম টানতে দুই সন্তান নীতি প্রণয়ন করা হোক। এই মর্মে আইন আনতে কেন্দ্রীয় সরকার ও আইন কমিশনকে নির্দেশ দিক শীর্ষ আদালত। বেশ কিছুক্ষণ চলা সওয়াল জবাবের পর অশ্বিনী উপাধ্যায়ের দাবি খারিজ করে দেয় বিচারপতি এস কে কউল ও এ এস অকা-র বেঞ্চ। এ প্রসঙ্গে মামলাকারীদের উদ্দেশ্যে বিচারপতি বলেন, একদিন আচমকা জনসংখ্যা বৃদ্ধি থেমে যাবে, এমনটা হতে পারে না। তাহলে কীভাবে আইন কমিশনকে এমন নির্দেশ দেওয়া যায়? একই সঙ্গে আদালতের তরফে জানানো হয়, “এবার কি এসব বিষয়ে আদালতকে সিদ্ধান্ত নিতে হবে? এহেন তর্কের পক্ষে ন্যূনতম যুক্তি থাক উচিত। আইন প্রণয়ন করা সরকারের কাজ। আমাদের আরও গুরুত্বপূর্ণ কাজ রয়েছে।”

Previous article“বিজেপি যেখানে জিতবে, সেখানেই টাকা যাবে”, পঞ্চায়েত ভোটের আগে বিস্ফোরক সুকান্ত